দেশকে মাদকমুক্ত ও সোনার বাংলা গড়তে বর্তমান প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের ভুমিকা অপরিহার্য

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:৪৮ PM, ০৮ জুলাই ২০১৯

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া :
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার হারবাং ও বরইতলী ইউনিয়নে শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ এবং মাদক, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, বাল্য বিবাহ, ইভটিজিং নিয়ে সামাজিক অপরাধ বিরোধী পৃথক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। হারবাং ও বরইতলী ইউনিয়নের চলতি অর্থ বছরের স্ব স্ব পরিষদের এলজিএসপি অর্থায়নে শিক্ষার্থীদের মাঝে এ শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়। সোমবার (৮জুলাই) সকালে উপজেলার হারবাং শাক্যমনি উচ্চ বিদ্যালয়ে ও দুপুরের দিকে বরইতলী উচ্চ বিদ্যালয়ে সামাজিক অপরাধ বিরোধী পৃথক দুটি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাস্মদ শিবলী নোমান।
প্রধান অতিথি ইউএনও শিবলী নোমান তার বক্তব্য বলেন, দেশে এক শ্রেণীর লোক আছে, যারা ইসলামের নাম ব্যবহার করে ধর্ম নিয়ে পুঁজি করে জঙ্গিবাদ ও নাশকতা চালিয়ে দেশে অস্থিতিশীল একটি ভয়ানক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তারা কখনো ইসলামের আদর্শ হতে পারে না। স্কুল, কলেজগামী শিক্ষার্থীদেরকে নানা ধরণের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে পথভ্রষ্ট করে জঙ্গীবাদের দিকে আকৃষ্ট করে তাদের বিরুদ্ধে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। দেশের চলমান পরিস্থিতিতে মাদক নামক জিনিষটা সর্বত্রে ছড়িয়ে পড়ছে। এ ভয়াবহ মাদকের নেশায় উঠতি বয়সের স্কুল, কলেজগামী শিক্ষার্থী ও তরুন সমাজ দিনদিন অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছে। এ ব্যাপারে প্রতিটি মা-বাবা, শিক্ষকদের তাদের ছেলে-মেয়ে ও সন্তানদের চলাফেরা, আচরন কর্মকান্ডের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। বর্তমানে দেশে সবচেয়ে মারাত্মকভাবে তরুণেরা ধাবিত হচ্ছে মাদকের নেশায়। এ মাদক রোধ করতে প্রথমে এগিয়ে আসতে হবে স্কুল,কলেজের শিক্ষার্থীকে। যে সমস্ত শিক্ষার্থীরা পড়া-লেখা অধ্যায়নরত রয়েছে তাদের সহপাঠীদের মেলামেশায় লোভে পড়ে অনেকেই মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে যায়। এ বিষয়ে সকল শিক্ষার্থীকে সচেতন হতে হবে।
ইউএনও শিবলী নোমান আরও বলেন, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাগামী ছাত্রীদের যাওয়া-আসার পথে বখাটে যুবকরা নানা ধরণের অঙ্গ ও বাচনভঙ্গি করে ইভটিজিং করে থাকে। এ দিকটি সকল সচেতনমহলকে প্রতিরোধে সর্বস্তরের জনগনকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। সমাজে নানা ধরণের অসংগতি রয়েছে, তার মাঝে এখনো পর্যন্ত প্রাপ্ত বয়স্ক হয়নি,পড়া-লেখায় অধ্যায়ন রয়েছে সে সমস্ত কমবয়সী ছাত্রীদেরকে বাল্যবিবাহ থেকে দূরে সরে রাখতে এলাকার জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক ও এলাকাবাসীর প্রতিও আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, সমাজ ও দেশ পরিবর্তনে বর্তমান প্রজন্মের শিক্ষার্থীরা সুন্দর একটি রাষ্ট্র বির্নিমানে বিরাট ভুমিকা রাখতে পারে। যার যার অবস্থান থেকে এলাকায় বাল্যবিবাহ, মাদক, ইভটিজিংসহ কোন ধরণের অপরাধ কর্মকান্ড চোখের নজরে পড়লেই সাথে সাথে প্রশাসনকে অবগত করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
সামাজিক অপরাধ বিরোধী সমাবেশ অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন, হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরান, বরইতলী ইউপি চেয়ারম্যান জালাল আহমদ সিকদার, বরইতলী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম, ইউপি সচিব নুরুল আলম, হারবাং ইউপি সচিব সালাহউদ্দিন কাদের, বরইতলী সংরক্ষিত ইউপি সদস্যা খালেদা বেগম, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি বাবুল, হারবা ইউপি সদস্য কামাল উদ্দিনসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ, অভিভাবকসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :