মেসি হচ্ছেন টাকা বানানোর মেশিন! ChannelCox.com

Najim UddinNajim Uddin
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:০৫ PM, ১২ অক্টোবর ২০২০

চ্যানেল কক্স স্পোর্টস ডেস্ক:

লিওনেল মেসি যে সময়টায় বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন, তখন মেসির বিপক্ষে বার্সার পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন স্প্যানিশ লা লিগা প্রেসিডেন্ট হ্যাভিয়ের তেবাস। তিনি ওই সময় লা লিগার অফিসিয়াল বক্তব্য হিসেবে নিজের অভিমত জানিয়ে দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, মেসির যে বাই আউট ক্লজ রয়েছে, সেই ৭০০ মিলিয়ন ইউরো দিয়েই তবে তাকে বার্সা ছাড়তে হবে।

হ্যাভিয়ের তেবাস একই সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছিলেন, রিলিজ ক্লজ পুরোপুরি পরিশোধ না করলে মেসিকে তারাও ছাড় দেবেন না। অর্থ্যাৎ, বার্সার আর্জেন্টাইন তারকাকে আটকানোর জন্য সর্বোচ্চ ভূমিকা রেখেছিলেন লা লিগা প্রেসিডেন্টও।

শেষ পর্যন্ত মেসি যেতে পারেননি। থেকে যেতে হয়েছে বার্সায়। ৭০০ মিলিয়ন ইউরো (তথা সাত হাজার কোটি টাকা) রিলিজ ক্লজ পরিশোধ করে মেসিকে কেনার সাহস করেনি আর কোনো ক্লাব। এখন মেসি খেলছেন বার্সার জার্সি পরে এবং গোলও করছেন। দলকে জেতাতে রাখছেন ভূমিকা।

অবশেষে মেসির যেতে না পারা নিয়ে মুখ খুললেন লা লিগা প্রেসিডেন্ট। তিনি সরাসরি জানিয়ে দিলেন, মেসি বার্সা ছাড়তে না পারায় কতটা খুশি এবং রিল্যাক্স হতে পেরেছেন।

ইতালিয়ান পত্রিকা লা গ্যাজেট্টা দেল্লো স্পোর্টকে দেয়া সাক্ষাৎকারে হ্যাভিয়ের তেবাস বলেন, ‘বার্সার জার্সিতে মেসিকে খেলতে দেখলে আমার খুব ভালো লাগে। আমি বার্সার এবং মেসির খেলা দেখতে পছন্দ করি। সবচেয়ে বড় কথা, মেসি হচ্ছেন যেন টাকা তৈরি করার মেশিন।’

তবে মেসি চলে গেলেও তার জন্য প্রস্তুত ছিলেন লা লিগা কর্মকর্তারা। তিনি বলেন, ‘যে কোনো একটি সময়ে মেসি এবং রোনালদোর (ক্রিশ্চিয়ানো) লা লিগা ছেড়ে যাওয়ার জন্য আমার প্রস্তুতই ছিলাম। সুতরাং, এটা আমাদের জন্য কোনোভাবেই অর্থনৈতিক আঘাত হিসেবে চিহ্নিত হতো না। নেইমার তো ফ্রান্সে প্যারিস সেন্ট জার্মেইতে গিয়ে যোগ দিয়েছে। কিন্তু ফ্রান্সের ফুটবল কি আন্তর্জাতিক মানে আসতে পেরেছে? ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোও যোগ দিয়েছে গিয়ে তুরিনে (জুভেন্টাস)। তাতে কি সিরি-আ লিগ খুব বেশি উপরে উঠতে পেরেছে?’

তবুও মেসি যদি চলে যেতেন, তাহলে নিশ্চিত লা লিগার আবেদন বিশ্বের কাছে অনেকটাই কমে যেতো। কিন্তু হ্যাভিয়ের তেবাস মনে করেন, এতে লা লিগা ব্র্যান্ডের কোনো ক্ষতিই হতো না। তিনি বলেন, ‘মেসি চলে গেলেও, আমরা এরই মধ্যে লা লিগার স্বত্ব আগামী চার বছরের জন্য বিক্রি করে দিয়েছি। সুতরাং, এর ব্র্যান্ড ভ্যালু কমার কোনো সম্ভাবনা নেই। এমনকি কেউ এ কথাও বলেনি যে, মেসি না থাকলে চুক্তির বিষয়টা পূনর্বিবেচনা করবে।’

Channel Cox News.

আপনার মতামত লিখুন :