• শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৫২ অপরাহ্ন
Channel Cox add

নিখোঁজের ২ দিন পর লাশ মিলল ধান ক্ষেতে | ChannelCox.com

সংবাদদাতা
আপডেট : মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০

কাইছার সিকদার:

কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলায় নিখোঁজ হওয়ার ২ দিন পর ধান ক্ষেতে মোঃ ইউনুস প্রকাশ পেটান(৩২) নামে এক ব্যক্তির লাশ মিলেছে বলে খবর পাওয়া গেছে৷ এ খবর নিশ্চিত করেছেন কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জালাল উদ্দিন৷

মৃত মোঃ ইউনুস উপজেলার উত্তর ধুরুং কিল্লা পাড়া এলাকার ৩নং ওয়ার্ডের মৃত মোঃ ফিরোজের ছেলে৷

২০ অক্টোবর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ ঘটিকা নাগাদ স্থানীয় ইফাদ কিল্লার কাছাকাছি ধান ক্ষেতে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়৷ আজ সকালে নিহতের স্ত্রী দিল জাহান ও মা ছকিনা বেগম নিখোঁজ মোঃ ইউনুস কে খোঁজতে বের হলে সকালে নিহতের বাড়ি থেকে আনুমানিক ২০০ গজ দুরে ধান ক্ষেতের মাঝখানে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তারা কাছে গিয়ে সেটা ইউনুসের লাশ বলে নিশ্চিত হন৷ কুতুবদিয়া থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে ঘটনা স্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন৷ তবে পরিবারের পক্ষ থেকে এ নিয়ে কোন অভিযোগ নেই বলে জানা যায়৷

নিহতের স্ত্রী দিল জাহান(২৮) এর ভাষ্য মতে আমার স্বামী মোঃ ইউনুস ১৮ অক্টোবর দিবাগত রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে পেট ব্যাথার কথা বলে নিজ বাড়ি থেকে বের হয়ে বাড়ির অদূরে একটি কালবার্টের উপর গিয়ে বসেন এরপর ২ ঘন্টার ও অধিক সময় পার হয়ে গেলে ইউনুস ফিরে না আসায় আমি, আমার শাশুড়ি ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে আশপাশের এলাকায় গভীর রাত পর্যন্ত খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ঘরে এসে ইউনুসের ফিরে আসার জন্য অপেক্ষা করতে থাকি৷ সকাল হওয়ার পর ও ফিরে না আসায় পাড়া প্রতিবেশী সবার কাছে বিষয় টি জানাই এবং সবাই মিলে বিভিন্ন জায়গায় ইউনুসের খোঁজ জারি রাখি৷ ১৯ অক্টোবর ইউনুসের খোঁজ পেতে দ্বীপের বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করা হয়, থানায় সাধারণ ডায়েরী করতে গেলে নিয়মানুযায়ী নির্দিষ্ট সময় পার হওয়ার পর ডায়েরী গ্রহণ করা হবে বলে তাঁরা আশ্বাস দেন৷

২০ অক্টোবর সকাল বেলা আমি এবং আমার শাশুড়ি হাসিনা বেগম(৫২) মিলে আবার বের হয়ে আশেপাশের এলাকা এবং ধান ক্ষেতের দিকে খুঁজতে গিয়ে ধান ক্ষেতের মাঝখানে একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখি পরে কাছে গিয়ে সেটা আমার স্বামী ইউনুসের লাশ বলে নিশ্চিত হই৷ আমাদের শোর চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন এবং পুলিশে খবর দেওয়া হলে তাঁরা এসে ঐ স্থান থেকে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যান৷

স্থানীরা জিন ভূতের কান্ড হতে পারে এ কথা বলাবলি করলেও কয়েকজন ইউনুস খুন হতে পারে বলেও ধারণা করেন এবং সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত ঘটনা খুঁজে বের করার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানান৷

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ ফারুক বলেন, ইউনুস ওরফে পেটান মানসিক প্রতিবন্ধী বলে জেনেছি, সে নিতান্তই একজন সরল সোজা ব্যাক্তি, তাঁর কোন শত্রু আছে বলে আমার মনে হয় না৷

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আ ন ম শাহরিয়ার চৌধুরী জানান, ইুনুসের পরিবারের কাছ থেকে জানতে পারি সে আংশিক মানসিক প্রতিবন্ধী ছিল, স্থানীয় ভাবে কারো সাথে তার কোন বিরোধ ছিল না৷ তবে ময়না তদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে৷

কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জালাল উদ্দিন বলেন, আমি ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছি, সূক্ষ্ম ভাবে সব কিছু পর্যবেক্ষণ করেছি৷ লাশের গায়ে অনাকাঙ্খিত কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায় নি, তবে নেশা জাতীয় দ্রব্য কিংবা তরল কোন বিষাক্ত পানীয়ের প্রভাবে যদি মারা যায় সেটা বাহ্যিক ভাবে দেখে নিশ্চিত হওয়া সম্ভব নয় তাই ময়না তদন্তের মাধ্যমে এ বিষয়ে নিশ্চত হতে লাশ ইতি মধ্যে কক্সবাজার সরকারী হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছি৷ ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে বিষয় টি নিশ্চিত করতে পারব৷ পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ বা আপত্তি ছিলনা বলে তিনি জানান৷

এলাকাবাসি ও সচেতন মহলের দাবি সুষ্ঠু ও নিরপক্ষ তদন্তের মাধ্যমে এই মৃত্যুর ব্যাপারে আসল তথ্য খুঁজে বের করা হউক।

Channel Cox News.


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × two =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ