• সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন
Channel Cox add

কক্সবাজার শহরে ভুয়া এসিল্যান্ড পরিচয়ে আটক

সংবাদদাতা
আপডেট : রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০

সিরাজুল ইসলাম :

কক্সবাজার শহরের কলাতলী সুগন্ধা পয়েন্ট এলাকা থেকে যতীন্দ্র নাথ দাস (৩৮) নামের এক ভুয়া এসিল্যান্ডকে আটক করেছে আইন-শৃংখলা বাহিনী।

আটক ভুয়া এসিল্যান্ড যতীন্দ্র নাথ দাস বাগেরহাট জেলাধীন চিতলমারী থানার চরকুড়াল তলা এলাকার জিতেন্দ্র নাথ দাসের ছেলে।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে তাকে আটক করে প্রশাসন।

এজাহার সুত্রে জানা গেছে, এক বছর পূর্বে হােটেল সীগ্যালের পিছনের সরকারি জমি থেকে বেশ কিছু অবৈধ বসতবাড়িত করেন প্রশাসন। এঘটনা নিয়ে উচ্ছেদ হওয়া সমাজের সভাপতি ও অন্যান্যরা পূর্ণবাসনের দাবীতে বারংবার সদর এসিল্যান্ডের সাথে যোগাযোগ করতে যায়। ভুক্তভোগীরা ভূমি অফিসে রুমের ভিতরে কথা বলার সময় ধৃত আসামীও আশেপাশে উপস্থিত ছিল দাবী করে মামলার বাদী মােঃ আলাউদ্দিন।

তিনি বলেন, সদর এসিল্যান্ডের
রুমের ভিতরে পূর্নবাসনের কথা বলার সময় ধৃত আসামীও উপস্থিত ছিলেন। তারা এসিল্যান্ড অফিস থেকে বের হওয়ার পর উক্ত আসামীও বাইরে এসে জানায় তিনি রামুর এসিল্যান্ড। আটক প্রতারক সদর এসিল্যান্ড তার বন্ধু হয় এবং কথা বলার সময় সভাপতিকে একপাশে ডেকে নিয়ে পূর্ণবাসন করার আশ্বাস দিয়ে ৩ লক্ষ টাকা দাবী করে। বিষয়টি সদর সহকারী ভূমি কমিশনারকে জানালে ধৃত আসামী উনার পরিচিত না বলে জানান।
এবার আসল-নকল প্রমান করার চেষ্টায় ছুটেছে ভুক্তভোগীরা। টাকা পাওয়ার আশায় ধৃত আসামী ২৯ অক্টোবর বিকাল ৪ টায় উক্ত টাকা নিয়ে লাবনী পয়েন্টে দেখা করতে বলে। তার কথামত লাবনী পয়েন্টের আলিফ লাম মীম জামে মসজিদের পার্শ্বে তার সাথে দেখা করলে সে জানায় কাজটি করার জন্য ডিসি ও মেয়রকে বলে দিয়েছে। সবকিছু কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে বিধায় উক্ত টাকা দাবী করে। তার কাছে টাকা দেওয়ার জন্য কিছু সময় চাইলে বা টাকা না দিলে সুগন্ধা পয়েন্টে উচ্ছেদ মামলায় জড়াবে বলে হুমকি দেয়।

পরে তার কথায় বিশ্বাস স্থাপন করে ৩০ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭ টায় তাকে ২৫ হাজার টাকা দিতে চাইলে তিনি টাকা নেওয়ার জন্য সুগন্ধা পয়েন্টের কড়াই রেষ্টুরেন্টের সামনে দেখা করেন। তার কথাবার্তা সন্দেহজনক হলে স্থানীয় লােকজনের সহায়তায় ধৃত করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি রামু থানার এসিল্যান্ড বলে দাবী করে। এ বিষয়ে মো.আলা উদ্দিন বাদি হয়ে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করে,যার মামলা নং-৭০/৩১.১০.২০২০ ইং ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কক্সবাজার সদর মডেল থানার এসআই মানিক কুমার চৌধুরী মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটক আসামিকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 + 3 =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ