• শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

দীর্ঘদিন পর এলাকায় ফিরেছে ইয়াবার ডিপু দিলু সিন্ডিকেট!

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে দিলমোহাম্মদ প্রকাশ দিলু। অভিযোগ আছে দীর্ঘ বছর ধরে টেকনাফে একছত্র ইয়াবা ব্যবসা চালিয়ে গা ঢাকা দিয়েছিলেন তিনি।
টেকনাফ স্থলবন্দরকে পুঁজি করে অবৈধভাবে ব্যবসা চালিয়ে কোটি টাকা কামিয়েছেন তিনি। পরিবার এবং স্বজনদের ব্যবহার করে হরহামেশায় চালিয়েছেন মরণনেশা ইয়াবার ব্যবসা।
দিলুর নিকটআত্মীয় স্বরষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী ইয়াছিন। যিনি ইয়াবা ডন সাইফুল করিমের গাড়ি চালক ছিলেন। বর্তমানে তিনি একটি বেসরকারী সংস্থায় কর্মরত আছেন বলে জানাগেছে।
সূত্র জানায়, চট্টগামের গোয়েন্দা পুলিশের কাছে ২০১৮ সালে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে তিনি আটক হয়েছিলেন। তার আপন ছোট ভাই ইদ্রিসও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের ইয়াবার তালিকায় আছেন। এছাড়াও আরেক ব্যক্তি দিলুর স্বজন পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়া ইয়াবা ডন সাইফুলের হোটেলের ম্যানেজার মোহাম্মদ নূরের সাথে দীর্ঘদিন ব্যবসা চালিয়েছেন।

সূত্র জানায়, মিয়ানমার থেকে নুরুল আলমের সাথে দিলমোহাম্মদ সাথে সরাসারি জড়িত।
অভিযোগমতে, দলীয় ব্যনারে টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে কৌশলে ইয়াবা ব্যবসা চালিয়ে গেছেন তিনি। এছাড়াও টেকনাফের যতো স্পেশাল গাড়ি আছে সবগুলোতে শক্তিশালী নেটওয়ার্ক তৈরি করেছেন ইদ্রিস। তিনি নাফ স্পেশাল সার্ভিসের লাইনম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করার সুযোগে দীর্ঘ দিন ধরে রমরমা ইয়াবা কারবার করেছেন তিনি।

সম্প্রতি দিলু সিন্ডিকেটের আরেক সদস্য ইয়াছিন দামী ব্র্যান্ডের নোহা গাড়ি কিনেছেন বলেও সূত্র দাবী করছে। এসব টাকার কোন উসতো নেই।
কিছুদিন আগে ঘটে যাওয়া সিনহা হত্যাকাÐের পর কক্সবাজারে পুলিশের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসলে দিলমোহাম্মদ দিলুর পুরো সিন্ডিকেট আবারো টেকনাফে এসে ইয়াবার রাজত্ব কায়েম করছে। তাদের রোধ করা না গেলে টেকনাফে ভবিষ্যতে ইয়াবা ব্যবসা বেড়ে যাবে বলে আশংকা করছেন সচেতন মহল।

SuperWebTricks Loading...

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 2 =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ