• সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন

আদালতের আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে-এসিল্যান্ড উখিয়া

Md. Nazim Uddin
আপডেট : মঙ্গলবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি:

উখিয়া উপজেলার জালিয়া পালং ইউনিয়নের ইনানী মৌজার বিরোধীয় জায়গা সংক্রান্ত নামজারী আপিল মামলার সরজমিন তদন্ত করতে গিয়ে উখিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার(ভূমি) মামলার বিবাদীদের প্রতি উপরোক্ত কথা বলেন। বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এর রাজস্ব আদালতের নামজারী আপিল মামলা নং ৩৬/২০(উখিয়া) ছৈয়দ আহমদ বনাম হাজী ছৈয়দ আলম গং বিরোধীয় জায়গার বিবাদীদের।

সোমবার (৮ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যা ৬.৩০ টার সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এর রাজস্ব আদালতে দায়ের করা নামজারী আপিল মামলা নং ৩৬/২০(উখিয়া) সরজমিন তদন্ত করতে যান উখিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি)। এলাকায় বিরোধীয় জায়গা নিয়ে পক্ষ বিপক্ষের মাঝে রক্তক্ষয়ী সংঘাত সৃষ্টি হবার সমূহ আশঙ্কা থাকায় বিরোধীয় জায়গায় শান্তিপূর্ণ স্থিতিশীল অবস্থা বজায় রাখার স্বার্থে পক্ষদ্বয়কে নির্দেশ প্রদান করেন।

কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন বিজ্ঞ আদালতে বিরোধীয় জায়গা নিয়ে কয়েকটি মামলা চলমান রয়েছে। বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এম,আর মামলা নং ৩৪২/২০২১ইং এর নিষেধাজ্ঞা বারিত আদেশ ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারায় মামলার বিবাদী ছৈয়দ আলম গংদের বিরুদ্ধে বিরোধীয় জায়গার শান্তিশৃঙ্খলা স্থিতিশীল অবস্থা বজায় রাখার জন্য মামলার পরবর্তী ধার্যদিন পর্যন্ত সময়ের জন্য ফৌজদারি কার্য বিধির ১৪৪ ধারা জারী করেন।

তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বাদীপক্ষের আপীলের প্রেক্ষিত মামলার বিবাদী ছৈয়দ আলম গংদের বিরুদ্ধে বিরোধীয় জায়গার উপর নিষেধাজ্ঞা হিসাবে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারা জারী করেন। বিজ্ঞ আদালতের আদেশ যেহেতু বিবাদী গংদের বিরুদ্ধে জারী করা হয়েছে। সেহেতু বিবাদী গংদের বিজ্ঞ আদালতের আদেশ মেনে চলতে হবে। নিষেধাজ্ঞার এই আদেশ মামলার পরবর্তী ধার্য তারিখ ১০/০৩/২০২১ইংরেজী পর্যন্ত বলবৎ থাকিবে মর্মে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আদেশ রয়েছে। উল্লেখিত সময়ের মধ্যে বিবাদী গং কতৃক বিরোধীয় জায়গার স্থিতিশীল অবস্থা ভঙ্গ করলে। আইন ভঙ্গ কারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসন কঠোর আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

পরবর্তী ধার্য তারিখ বিজ্ঞ আদালত যে আদেশ দিবেন সেটাই মেনে চলতে হবে। তিনি বিবাদী গংদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আদালতের আদেশকে সম্মান করে কোন ধরনের শান্তিশৃঙ্খলা ভঙ্গ করার মতো কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে বলেন। এই জায়গা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে কোন ধরণের সংঘাত যাতে না হয় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি উভয় পক্ষকে বিরোধীয় জায়গার সপক্ষে দলিলপত্র নিয়ে উপজেলা ভূমি অফিসে উপস্থিত হতে নির্দেশ প্রদান করেন। তবে কোন তারিখ উপস্থিত থাকতে হবে পক্ষদ্বয়কে সেই তারিখটি নির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি।

উপস্থিত স্থানীয় জনসাধারণ সহকারী কমিশনার (ভূমি)কে জানান, এই জায়গার বিরোধকে কেন্দ্র করে পক্ষদ্বয়ের মাঝে যেন কোন ধরনের সংঘাত সৃষ্টি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখার জন্য বলেন। বিরোধীয় জায়গাতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) উপস্থিত থাকা কালীন সময়ে বিবাদী গংদের পক্ষের কয়েকজন লোক নানা ধরনের উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করতে দেখা যায়। এমনকি উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে বাদী পক্ষের লোকদের খুন করলে কত টাকা খরচ হবে। প্রয়োজনে কোটি টাকা খরচ হলেও করবে বলে এমন হুমকি প্রকাশ্যে দিতে দেখা যায়।

বিরোধীয় জায়গাতে গত ২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ ইংরেজি তারিখ থেকে নানা ঘটনার জন্ম হয়েছে। বিজ্ঞ আদালতের দেওয়া ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারার আদেশ ভঙ্গ করা থেকে শুরু করে মামলা হামলাসহ অনেক অঘটন সংঘটিত করা হয়েছে। ঘটানো সকল অঘটনের এবং আজকের এই হুমকি ধমকি সহ সংঘটিত সমস্ত ঘটনার সঠিক তথ্য উপাত্তের উপর ভিত্তি করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ ও প্রচার করা হবে। সেই তথ্য উপাত্ত সমৃদ্ধ ভিডিও ক্লিপ আমাদের কাছে সংরক্ষিত আছে। পরবর্তীতে বিরোধীয় জায়গার পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন প্রকাশ করা কালীন সময়ে ঘটে যাওয়া নানা অঘটনের সাথে কাদের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে তার সম্পূর্ণ প্রতিবেদন আমাদের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ায় প্রকাশ ও প্রচার করা হবে।

উখিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ আমিমুল এহসান খান বলেন, দাঙ্গা হাঙ্গামার মাধ্যমে জায়গার স্বত্ববান হওয়া যায়না। জায়গার সঠিক দলিলপত্র মূলে স্বত্বের মালিক হওয়া যায়। গায়ের জোরে মালিক হওয়া যায়না।

SuperWebTricks Loading...

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + eight =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ