• বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন

করোনা মোকাবিলায় লকডাউনে পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নেমেছে কুতুবদিয়া থানা

Md. Nazim Uddin
আপডেট : সোমবার, ৫ এপ্রিল, ২০২১

কাইছার সিকদার:

বর্তমান বিশ্বের অদৃশ্য মূর্তিমান আতঙ্কের নাম কোভিড-১৯ করোনা৷ ২০২০সালে সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশে ও পড়েছিল করোনার ভয়াল থাবা৷ গত বছরের ৮ই মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয় ফলে পর্যায়ক্রমে প্রায় দশ হাজার মানুষ প্রাণ হারায় এবং প্রায় চার লক্ষ লোক আক্রান্ত হয় ভয়ঙ্কর এই রোগে৷ সরকারের সচেতন পদক্ষেপে মাঝখানে প্রভাব একটু কমে আসলেও যথারীতি বছর ঘুরতেই ২০২১সালের মার্চে এসে আবারো বিষাক্ত প্রবাভ বিস্তার করতে শুরু করেছে কোভিড-১৯, দিন দিন বেড়ে চলেছে মৃত্যুর সংখ্যা ও আক্রান্তের সংখ্যা৷ করোনা মোকাবিলায় সফল বাংলাদেশ সরকার করোনার প্রভাব বিস্তার রোধে প্রথমিক ভাবে পূর্বের ন্যায় সারাদেশ লকডাউনের আওতায় এনে জনসমাগম ও অবাদ চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ করে মহামারী থেকে রক্ষার পরিকল্পনা নিয়েছে৷ প্রাথমিক ভাবে ০৫ মার্চ থেকে ১১মার্চ পর্যন্ত এক সপ্তাহের লকডাউন শুরু হয়েছে৷ লকডাউন বাস্তবায়নে জন সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নেমেছে কুতুবদিয়া থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন৷

জনস্বার্থে লকডাউন বাস্তবায়নে কুতুবদিয়া থানা পুলিশ টিম উপজেলার বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে তদারকি, ঘাট পারাপার ও গণ পরিবহনে নজরদারী, হাট বাজারে ও দোকানপাটে আধিক জনসমাগমে বাঁধা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে সচেতনতা তৈরি, জনসাধারণের মাঝে মাস্ক বিতরণ, প্রসুতি ও রোগী পরিবহনকারী যানবাহন যথাসময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে সর্বাত্মক সহযোগিতা সহ নানাবিধ কর্মকাণ্ড৷ এসময় নিয়ম ভঙ্গ করে অধিক যাত্রী পরিবহনের কারণে প্রায় ৩০টি বিভিন্ন প্রকারের যানবাহন সাময়িক ভাবে আটক করেন তাঁরা৷

এব্যাপারে কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জালাল উদ্দিন জানান, কুতুবদিয়া দ্বীপের জনসাধারণ কে করোনার ভয়াল থাবা থেকে নিরাপদে রাখতে সরকার ঘোষিত লকডাউনে আমরা কুতুবদিয়া থানার পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যাবস্থা ও প্রস্তুতি রয়েছে৷ দোকানপাট খোলা ও জনসমাগম নিয়ন্ত্রণে রাখার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি৷ করোনা বিস্তার রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য সাধারণ মানুষকে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে পরামর্শ ও প্রচারনা অব্যাহত রয়েছে৷ গণ হারে করোনা বিস্তার রোধে সর্বস্থরের মানুষের সহযোগিতা আশা করছি, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে দ্বীপবাসীকে নিরাপদ রাখতে সক্ষম হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি৷

কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম জহিরুল হায়াত (০৫) এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টার পরে অভিযান চালিয়ে মোটর সাইকেল, ফার্মেসী, এলপি গ্যাসের দোকান সহ বেশ কয়েকটি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান কে লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গের কারণে ভিন্ন ভিন্ন অংকের জরিমানা আদায় করেন৷

এদিকে লকডাউনে পড়ে কর্ম হারিয়ে ঘরে আটকা পড়া দরিদ্র জনগোষ্ঠি অভাব ও অনাহারে পড়তে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল৷ তাঁদের দাবি লকডাউনের পাশাপাশি ঘরে বন্ধি কর্মহারা মানুষের জন্য পর্যাপ্ত ত্রাণ সামগ্রীর ব্যাবস্থা করা সরকারের উচিৎ৷

SuperWebTricks Loading...

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen + seventeen =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ
error: Content is protected !!