• বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনসচেতনতা মুলক কর্মসূচি পালিত

Md. Nazim Uddin
আপডেট : শনিবার, ১৯ জুন, ২০২১

এ.এইচ রিপন চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধকল্পে সর্বস্তরের জনগনকে সচেতন করার লক্ষ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে শনিবার (১৯ জুন) সকাল ১০টায় জনস্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রানালয়ের উদ্যোগে বিভিন্ন বিষয়ে প্রদর্শনী ভিত্তিক জনসচেতন মূলক কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে ফিতা কেটে জনসচেতনতা মুলক কর্মসুচির উদ্বোধন করেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার প্রতিনিধি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ইনর্চাজ ডা. নজির আহমদ।

জনসংখ্যা ও পুষ্টি সেক্টর কর্মসূচী’র (এইচপিএনএসপি) আওতায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরাধীন স্বাস্থ্যশিক্ষা ব্যুরো’র লাইফস্টাইল, হেলথ এন্ড প্রমোশন কার্যক্রমের আওতায় স্বাস্থ্যশিক্ষা সেবা প্যাকেজ কার্যক্রমের দেশব্যাপী সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এই কার্যক্রমের আওতায় চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে এই কর্মসুচি উদ্বোধন করা হয়।

প্রদর্শিত কর্মসুচির মধ্যে রয়েছে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে কিছুক্ষণ পরপর সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করা, মাস্ক পরা, নূন্যতম তিন ফুট দূরত্ব বজায় রাখা, জনসমাগন এড়িয়ে চলাসহ, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সচেতনতামুলক কার্যক্রম।

জানা গেছে, সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় ‘মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধির উপদেশ, তবেই করোনামুক্ত হবে বাংলাদেশ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার লক্ষে জনসচেতনতামূলক নানাবিধ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

এরই অংশ হিসেবে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়নে লোকগান, নাটিকা, বিজ্ঞাপন ও ক্যারাভান প্রদর্শনীসহ মানিকছড়ি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে প্রচারণামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।

কর্মসুচি উদ্বোধনকালে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে উপস্থিত ছিলেন উপ-সহকারি মেডিকেল অফিসার ডা. ডা.আবদুস ছালাম, হাসপাতালের কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, প্রকল্পের মনিটরিং সুপারভাইজার রিপন আহমেদ, ছাড়াও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তার, নার্স ও অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

প্রসঙ্গত: ২০২০ সালের মার্চ মাসে বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে সরকার দেশের জনসাধারণকে সংক্রমণ থেকে রক্ষার্থে স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য লকডাউন ঘোষণাসহ সচেতনতামূলক নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করে আসছে। যার প্রেক্ষিতে বিশে অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে করোনা সংক্রমনের সার্বিক পরিস্থিতি তুলনামুলক স্থিতিশীল রয়েছে।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ