সেপ্টেম্বরে শাপলাপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন – মহেশখালী উপজেলার

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:৪০ AM, ২০ অগাস্ট ২০১৯
Transparent ballot boxes are being sent to different polling centers from yesterday. The parliamentary election will be held in December 29 this year. Rajshahi, Bangladesh. December 12 2008

ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান খান, উপকূলীয় (কক্সবাজার) প্রতিনিধি:
আগামি সেপ্টেম্বর মাসেই অনুষ্টিত হচ্ছে শাপলাপুর ইউপি নির্বাচন। নভেম্বরেই ৫ বছর পুর্তী হবে পরিষদের মেয়াদ। এতে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পেতে আওয়ামী লীগের ৬ জন নেতা দৌড়ঝোপ শুরু করেছেন। অপরদিকে দলীয় প্রতীক বিহীন নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি সমর্থিত একজন প্রার্থী। এছাড়া লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন থাকবেন বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুল হক।
মহেশখালীর শাপলাপুর ইউপি নির্বাচনের দিন ঘনিয়ে আসায় সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ইতোমধ্যে তৎপরতা শুরু করেছেন। এতে ৭ জন আওয়ামী লীগ নেতা দলের মনোনয়ন চাইতে পারেন বলে জানা গেছে। সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা মৌঃ ওসমান গণী, উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাইদুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রুহুল আমিন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ওসমান সরওয়ার, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন ও সাবেক সভাপতি মাস্টার ইদ্রিচ আলম। এ ছাড়া সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল খালেক স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করবেন। বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন না দিলেও দল সমর্থিত একজন প্রার্থী দলীয় প্রতীক বিহীন নির্বাচন করবে কেন্দ্রিয়ভাবে এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে বিএনপির সমর্থনে নির্বাচন করতে পারেন এডঃ রফিকুল ইসলাম। তার পিতা প্রয়াত ছিদ্দিক আহমদ শাপলাপুরের দুইবার চেয়ারম্যান ছিলেন। এ ছাড়াও বর্তমান চেয়ারম্যান সাবেক জামায়াত নেতা নুরুল হক জাতীয় পার্টির ব্যানারে এবং এম দিদারুল ইসলাম স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে পারেন বলে জানা যায়।
শাপলাপুর বাজার এলাকার শফিকুর রহমান জানান, গত ইউপি নির্বাচনের পর থেকে শাপলাপুরের উন্নয়ন মুখ থুবড়ে পড়ে। এখন দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে পুরো ইউনিয়ন। আমরা ইউনিয়নবাসী আগের অবস্থায় ফিরে যেতে চাই। একজন সুশৃংখল জনপ্রতিনিধি চাই। যিনি দক্ষতার সাথে পরিষদ পরিচালনা করতে পারবেন।
মিড়াছড়ির খলিলুর রহমান জানিয়েছেন, আমরা আর ভুল করতে চাইনা। কোন ষড়যন্ত্রেও পা দিতে চাইনা। আমরা আগামি নির্বাচনে সঠিক নেতৃত্বই নির্বাচিত করব। যিনি আমাদের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করবেন।
আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী প্যানেল চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন জানিয়েছেন, যার জনসমর্থন আছে তিনিই দলের মনোনয়ন পাবেন। দল মনোনয়ন দিলে নির্বাচনের জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি রয়েছে। এ ছাড়া দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই।
সম্ভাব্য প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান এডঃ আবদুল খালেক চৌধুরী জানিয়েছেন, আমি পরিক্ষিত চেয়ারম্যান। জনগণ চাইলে অবশ্যই নির্বাচন করব।

আপনার মতামত লিখুন :