লামায় বমু খালের পানিতে একই পরিবারের দুই শিশু নিখোঁজ

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:৩০ PM, ৩১ অগাস্ট ২০১৯

মোঃ নাজমুল হুদা,লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধিঃ
বান্দরবানে লামার বমু খালে মাছ ধরতে গিয়ে পানিতে পড়ে একই পরিবারের দুই শিশু গত ৩দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন।গত বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার গজালিয়া ইউনিয়নে বমুর খালের লম্বাছড়ার কুম নামক স্থানে পানিতে পড়ে তাঁরা নিখোঁজ হয়। পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা অনেক খোঁজাখুজি করে তাদেরকে উদ্ধার করতে পারেনি এখনও।

একই পরিবারের নিখোঁজ দুই শিশু (বোন) হলো ইয়াছিন বেগম (১১) ও মুক্তা বেগম (৭)। দুইজনই গজালিয়া ইউনিয়নের বাতেন টিলা এলাকার মনির আহমদের মেয়ে। তারা ওই ইউনিয়নের ক্রংতং পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় ও ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী।

ঘটনার ৩দিন পেরিয়ে গেলেও নিখোঁজ দুই শিশু উদ্ধার না হওয়ায় শনিবার তাদের উদ্ধারে অভিযান চালাতে লামা ফায়ার সার্ভিসকে নির্দেশ দেন লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি। অবশেষে শনিবার দুপুরে লামা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল উদ্ধার অভিযানে যান।
লামা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা সাফায়েত হোসেন বলেন, শনিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি জানালে আমরা নিখোঁজ দুই শিশু উদ্ধারে অভিযান শুরু করি। দুপুর থেকে আমাদের একদল কর্মী উদ্ধারে কাজ করছে। চট্টগ্রামে অভিজ্ঞ ডুবুরী টিমকে খবর দেয়া হয়েছে। নিখোঁজ দুই শিশুর পিতা মনির আহমদ বলেন, বাড়ির পাশের খালে তারা মাছ ধরতে গিয়েছিল। আমরা অনেক খোঁজাখুজি করেও পাইনি। দুই সন্তানকে হারিয়ে পরিবারের সবাই শোকে কাতর।

গজালিয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার উসাচিং মার্মা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে বৃষ্টি হওয়ায় বমু খালে প্রচুর পানি এসেছিল। তাই শিশু দুইটি উদ্ধার অনেকটা কঠিন হবে। এবং তারা সাতার জানে না বলে জানান পরিবারের সদস্যরা।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, পুলিশের একটি টিম উদ্ধার কাজে ফায়ার সার্ভিসকে সহযোগিতা করছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :