• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১১:০৯ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

পেকুয়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে ইউপি মেম্বারের বাবাকে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০২২

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের পিতাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে একদল সন্ত্রাসীরা।

সোমবার (২৫ জুলাই) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের পাহাড়িয়াখালী ছনখোলারজুম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত জাফর আলম (৬০) পাহাড়িয়াখালী এলাকার বাসিন্দা। পেকুয়া থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে।
নিহতের স্বজনেরা জানায়,জাফর আলম চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালততে মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে একদল সন্ত্রাসী ছনখোলারজুম এলাকায় হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে নির্মমভাবে খুন করে। পরে তারা ঘাতকরা উল্লাস করতে করতে নির্জন পাহাড়ের দিকে চলে যায়।

নিহতের স্বজনদের দাবী,পুর্ব শত্রুতার জেরে তারা পরিকল্পিতভাবে জাফর আলমকে হত্যা করেছে। স্থানীয়রা জানায়, ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম ও তার ছোট ভাই আলমগীর কক্সবাজার কারাগারে রয়েছে। কয়েক মাস আগে তাদের পিতা জাফর আলম একই কারাগার থেকে জামিনে বের হন। পাহাড়িয়াখালী এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য জাফর আহমদের সাথে দীর্ঘ সময় ধরে জাহাঙ্গীর আলম গংদের বিরোধ রয়েছে। বনবিভাগের সংরক্ষিত জায়গা ও বালু মহালের আধিপত্য নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ দীর্ঘ বছর ধরে। দু’পক্ষের মধ্যে একাধিক রক্তপাত সংঘটিত হয়েছে। এর জের ধরে জাফর আহমদের ছেলে জমির উদ্দিন ও রহিম দাদের ছেলে মুছার নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের পিতাকে নির্দয়ভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ ফরহাদ আলী জানায়, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে।ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর বিস্তারিত জানা যাবে। তিনি আরও জানায়, প্রাথমিকভাবে জেনেছি পুর্ব শত্রুতার জেরে এ হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ