• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৪:৪০ অপরাহ্ন

এবার ঈদের নামাজে ইমামকে ‘বেয়াদব’ বললেন মিনু

ডেক্স নিউজ / ৩১ ভিউ টাইম
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪

ঈদের নামাজের মোনাজাত নিয়ে বিরক্ত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু। সোমবার (১৭ জুন) সকালে রাজশাহীর হযরত শাহ মখদুম (রহ.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে ঈদের নামাজ শেষে ইমাম মুফতি মোহাম্মদ ওমর ফারুককে ‘বেয়াদব’ বলেন তিনি।

মুফতি ওমর ফারুক রাজশাহীর সবচেয়ে বড় এই ঈদের জামাতে ইমামতি করেন। তিনি খুতবার বাইরেও বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন। খুতবা শেষে অনেকটা লম্বা সময় ধরে দোয়া করেন তিনি। এসব কারণেই ইমামের প্রতি বিরক্ত হন রাজশাহীর সাবেক সিটি মেয়র ও সাবেক সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিনু।

দুই বছর আগেও একই মাঠে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় শেষে মিনু ইমামকে ভর্ৎসনা করেছিলেন। সেদিন নামাজ আদায় শেষে মিনু ইমাম মাওলানা মুফতি মোহাম্মদ শাহাদাত আলীকে ‘দালাল’ উল্লেখ করে ভর্ৎসনা করেছিলেন। এবার সেই একই ঈদগাহে আলাদা ইমামকে বললেন ‘বেয়াদব’।

মিনু ইমামকে উদ্দেশ করে বলেন, ধর্মের দোয়া পড়াবেন। বিএনপি-আওয়ামী লীগের দোয়া পড়াবেন না। বেয়াদব সব।

এই ঈদগাহে বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর ও জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদও অংশ নিয়েছিলেন। তবে নামাজ শেষে বিএনপির এই নেতার এমন আচরণ তারা খেয়াল করেননি।

নামাজ শেষে ঈদগাহে সাংবাদিকরা মিনুর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নামাজে দোয়া হবে মানুষের কল্যাণের জন্য। দলীয় টান টেনে দোয়া করা ঠিক নয়।

ইমামকে ‘বেয়াদব’ বলার বিষয়ে তিনি বলেন, এটা আমি বলতে যাব কেন! যদি বলি তাহলে এটা স্লিপ অব টার্ন।

ইমাম মুফতি মোহাম্মদ ওমর ফারুক বলেন, দোয়া সবার জন্য হয়েছে। ঈদের মাঠে আল্লাহর কাছে চাওয়া-পাওয়ার জন্য দোয়া করা হয়। কারও সমস্যা হলে তিনি চলে যাবেন এটাই নিয়ম।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ