মহেশখালী-শাপলাপুর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উৎসবের আমেজের পাশা-পাশি অজানা শঙ্কা ভোটারদের মাঝে

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:৩৮ PM, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

এ.এম হোবাইব সজীব,শাপলাপুর থেকে ফিরেঃ

রাত পোহালেই আগামীকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে বহু প্রতিক্ষিত মহেশখালী উপজেলার পাহাড় ও নদী বেষ্টিত শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এই এলাকায় মোট ভোটার ১৯ হাজার ৫১৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯ হাজার ৮৫৭ ও নারী ভোটার ৯ হাজার ৬৬২ জন। তবে নির্বাচনকে ঘিরে শাপলাপুর ইউনিয়নে ভোটারদের মাঝে উৎসবের আমেজের পাশা-পাশি অজানা শঙ্কা বিরাজ করছে। কারণ এ নির্বাচন আদৌও শান্তিপূর্ণ হবে কিনা সন্দেহ প্রকাশ করছে ভোটাররা। চেয়ারম্যান ও মেম্বার পদের প্রার্থীরা দিনরাত সমানে প্রচাণা চালানোর পর গতকাল থেকে সকল প্রকার প্রচার-প্রচারনা বন্ধ হয়ে গেছে। সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে,সবখানে ছেয়ে গেছে প্রার্থীদের পোষ্টারে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সব আড্ডায় আলোচনায় বিষয় নির্বাচন।

প্রার্থীদের প্রতিশ্রুতি বিশ্লেষণ করছেন ভোটাররা। ভোটারদের ভাষ্যমতে এখনই বলা মুশকিল কে হচ্ছেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তবে তারা জানান ত্রি-মূখী লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে ও ভোটার মাঠে পাশ্ববর্তী কালারমারছড়ার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তারেক শরীফ কোমর বেঁধে কমলের পক্ষে ভোট চাইতে মাঠে থাকায় এগিয়ে রয়েছেন বীর মুক্তিযুদ্ধা মরহুম নুরুল আমিন হেলালীর সন্তান ঠগবগে যুবক সাংবাদিক সালাহ উদ্দিন হেলালী কমল। তবে নৌকার মাঝি আব্দুল খালেক চৌধুরীকে একেবারে উড়িয়ে দিলে হবেনা। তিনিও জয়ের লক্ষে বিশাল ভোট ব্যাংক ধরে রেখে ভোটারদের ধারে ধারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করেছেন। স্বতন্ত্র প্রার্থী দিদারুল ইসলাম ( দোয়াত কলম) শাপলাপুরের উত্তর প্রান্তে বিশাল ভোট ব্যাংক ধরে রেখেছেন।

শাপলাপুর ইউনিয়নের মৌলভী কাটার পান ব্যবসায়ী আবুবক্কর ছিদ্দিকসহ আরও অনেক ভোটার জানান, দীর্ঘ সময়ে সাংগঠনিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ছিল এবং ক্লিন ইমেজের নতুন মূখকে গুরুত্ব দিবে এ নির্বাচনে। তিনি আরও জানান প্রতীক দেখে নই এবার ভোটাররা প্রার্থী দেখে ভোট দিবে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ১৬ প্রার্থী। এতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আব্দুল খালেক চৌধুরী, বিএনপি ও জামায়াত প্রার্থী না দিলেও তারা সমর্থন দিচ্ছেন রফিকুল ইসলামকে। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন যুমনা টিভির সিনিয়র রিপোর্টার সালাহ উদ্দিন কমল,মোঃ দিদারুল ইসলাম, মনির আহমদ, বর্তমান চেয়ারম্যান নুরুল হক,আব্দুল গফুর, মোঃ নুরুল হুদা, গিয়াস উদ্দিন সিকদার, ওচমান সরওয়ার,মোঃ সাইদুল ইসলাম চৌধুরী, এ কে এম ইলিয়াছ, বদর উদ্দিন, মোঃ আলম, মোঃ জাহান ফারুকী ও সোহেল রানা।

তবে মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে স্বতন্ত্র প্রার্থী কমল (আনারস), আব্দুল খালেক চৌধুরী (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী দিদারুল ইসলাম (দোয়াত কলম)।

মহেশখালী উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্ণিং অফিসার মোঃ জুলকার নাঈম বলেন, প্রত্যাক কেন্দ্রে একজন করে ম্যাজিষ্ট্রেট থাকবে, এছাড়া পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি, পর্যবেকক্ষক করবেন।

মহেশখালী উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোঃ জামিরুল ইসলাম জানিয়েছেন,অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠের লক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আর কেউ যদি ভোট কেন্দ্রে গোলযোগের সৃষ্টি করতে চাইলে তাদেরকে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :