রামুতে গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় দিনভর নির্যাতন

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:০৮ PM, ২৭ এপ্রিল ২০১৯

 শাহীন মাহমুদ রাসেল : রামু উপজেলার জারাইলতলীতে যৌতুকের টাকা না দেয়ায় শশুরবাড়ির লোকজন দিনভর ইসমত আরা নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন করেছে। গৃহবধূর ভাবী সুলতানা রাজিয়া ননদতে উদ্ধার করতে গিয়ে তিনিও নির্যাতনের শিকার হন বলে অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার সকালে চাকমারকুল ইউনিয়নের জারাইলতলী এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। গৃহবধূ ইসতম আরা কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়েনের খরুলিয়া মেহের আলী পাড়া এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর মেয়ে। গৃহবধূর বোন মুবিনা আক্তার জানান, গত ৮ বছর আগে জারাইলতলী এলাকার মৃত নুর আহাম্মদের ছেলে আবুল কালামের সঙ্গে ইসমত আরার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি একটি মেয়ে সন্তান হয়। পরে গৃহবধুর স্বামী বিদেশ চলে যায়। বেশ কিছুদিন ধরেই আবুল কালাম ও তার পরিবারের লোকজন পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছে ইসমত আরার কাছে। যা নিয়ে কয়েকবার রামু থানায় অভিযোগও করেছেন ভুক্তভোগী ইসমত আরা ও তার পরিবার। পরে এস আই সালাউদ্দিন থানায় বৈঠকের মধ্যমে মিমাংসা করে দেয়। গত শুক্রবার সকালে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না দেয়ায় দিনভর ইসমত আরাকে ঘরে তালাবদ্ধ করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালায় দেবর রুবেল, ইসমাইল, ননদের জামাই ওসমান, ননদ রুকেয়াসহ শাশুরী মাবিয়া খাতুন। পরে ননদকে উদ্ধার করতে জারাইলতলী এলাকায় গেলে ভাবী সুলতানা রাজিয়াও শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বলে জানান। পরে বিষয়টি রামু থানাকে অবহিত করলে এস আই সালাউদ্দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় গৃহবধু ইসমত আরাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে। বর্তমানে সে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে রামু থানার এস আই সালাউদ্দিন বলেন, এ ধরনের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নির্যাতনের শিকার গৃহবধুকে উদ্ধার করেছি। অভিযুক্ত শশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :