মহেশখালীতে ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী অপহরণ

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৪৩ PM, ১১ জানুয়ারী ২০২০

নিজস্ব সংবাদদাতা,মহেশখালীঃ

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ীতে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ৮ম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে বখাটে কর্তৃক অপহরণের শিকার হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও অপহরনের শিকার মেয়েটির পরিবারের সদস্যরা জানান, গতকাল (শনিবার) সকাল সাড়ে ৬ টার সময় উক্ত শিক্ষার্থী প্রতিদিনের ন্যায় বাড়ী থেকে বাহির হয়ে মাদ্রাসার শিক্ষকের নিকট প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় লাইল্যা ঘোনা সড়কে পৌঁছলে আগে থেকে উৎপেতে থাকা স্থানীয় লাইল্যা ঘোনা ও বিলপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মাহামুদুল হাসান তাকিব ও তৈহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে ৩/৪ জন বখাটে যুবক আফরোজা কাদের ছুমাইয়া ছাত্রীটিকে টানা হেচড়া করে সিএনজি গাড়ী করে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

এ লোমহর্ষক ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের লাইল্যা ঘোনা গ্রামে। অপহরনের শিকার মেয়েটি মাতারবাড়ী লাইল্যা ঘোনা গ্রামের বিদেশ প্রবাসী মহিবুল কাদেরে কন্যা আফরোজা কাদের ছুমাইয়া (১৪)। সে মাতারবাড়ী মজিদিয়া সুন্নিয়া সিনিয়র আলিম মাদ্রাসায় ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী। এ ব্যাপারে স্থানীয়দের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়ে পরস্পর বিরোধ বক্তব্য পাওয়া গেছে, তবে অভিযুক্তরা বলছেন প্রেমের জেরে পালিয়ে গেছে মেয়েটি।

স্থানীয় লাইল্যা ঘোনা গ্রামের বাসিন্দা উক্ত ছাত্রীটির মা রোকেয়া বেগম বলেন, আমার মেয়ে আফরোজা কাদের ছুমাইয়া মাতারবাড়ী মজিদিয়া সুন্নিয়া সিনিয়র আলিম মাদ্রাসায় যাওয়া আসার সময় বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উক্তপ্ত করে আসছে স্থানীয় বখাটে মাহামুদুল হাসান তাকিব নামে এক যুবক। বিষয়টি পরিবারের পক্ষ থেকে মাদ্রাসা শিক্ষকদের অবহিত করলে ছেলেটি প্রতিশোধ পরায়ণ হয়ে আমার মেয়েটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে আমার মেয়েটিকে অপহরণকারীদের কাছ থেকে উদ্ধারসহ শাস্তির দাবি জানাচ্ছি ওই সব বখাটাদের।

মাতারবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ীর টু আইসি এ.এস আই জাহাঙ্গীর বলেন, বিষয়টি উর্ধ্বতন কৃর্তপক্ষ আমাকে তদন্ত নির্দেশ দিলে আমি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিব।

মহেশখালী থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, অপহরণ নাকি অন্য কোন ইস্যু তা তদন্ত পূর্বক সংশ্লিষ্ট আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুন :