এক করোনা জনশূন্য করল কক্সবাজার সমুদ্রে সৈকত

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:০৬ PM, ১৯ মার্চ ২০২০

চ্যানেল কক্স,
পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত এখন জনশূন্য ইতিহাসে প্রথম কক্সবাজার কক্সবাজার জনশূন্য বীচ এলাকা সাথে
কক্সবাজারের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলো এমন ভাবে নিয়ন্ত্রিত। করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি কমাতে এমন কাজকে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে এম সাধুবাদ জানান স্থানীয় সচেতন মহল। একদিন আগেও কক্সবাজারের পর্যটন কেন্দ্রগুলো লোকে-লোকারণ্য ছিলো। পর্যটকে ভরপুর ছিলো আবাসিক হোটেলগুলোতেও। কিন্তু এখন জনশূণ্যে পরিনত হয়েছে। হঠাৎ একটি ঘোষণাই বদলে গেল পুরো চিত্র। পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে নেমে আসলো নীরবতা। কোথাও নেই কোলাহল।
এদিকে,করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ এড়াতে কক্সবাজারের সকল পর্যটন কেন্দ্রেগুলো পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন।
পরিদর্শন করে দেখা যায়, বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকালের দিকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত, ইনানী সৈকত, হিমছড়ি ঝর্ণা ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কসহ পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে এখন পর্যটক নেই। এমনকি স্থানীয়দের আনাগোনাও নেই। বিরাজ করছে শুনশান নিরবতা। পর্যটক না থাকায় স্থানীয় দোকানগুলো প্রায় বন্ধ রাখছে।
আরো নিরাপত্তার চিন্তা করে বুধবার বিকালে করোনা ভাইরাস থেকে আত্মরক্ষায় জনসমাগমে বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণার পর থেকেই জনশুণ্য হয়ে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতসহ আশপাশের পর্যটন কেন্দ্রগুলো এবং বহিরাগত পর্যটক যেন কক্সবাজার ডুকতে না পারে সেজন্য কক্সবাজার- চট্টগ্রাম মহাসড়ক চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইনানী রিসোর্ট এলাকায় কক্সবাজারের বিভিন্ন স্থানে পুলিশের চেক পোস্ট বসানো হয়েছে। এমন সিন্ধান্ত বাস্তবায়ন করেন কক্সবাজার জেলা পুলিশ

আপনার মতামত লিখুন :