থেমে নেই কুতুবদিয়া উপজেলার দরিদ্রের ত্রাণ কর্তা ইউএনও জিয়াউল হক মীর

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:১০ PM, ০৪ এপ্রিল ২০২০

কাইছার সিকদার:

সম্প্রতি নোভেল করোনা ভাইরাসের প্রভাব বিস্তার রোধে বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় সঠিক সময়ে সারা দেশের মানুষের সব ধরনের চলাচল ও জন সমাগম সম্পূর্ণ রুপে নিয়ন্ত্রনে রেখে এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার৷ যার ফলে বন্ধ হয়ে গেছে মানুষের অর্থনৈতিক সকল কর্মকান্ড, জীবিকা নির্বাহের সব পথ। আপাততঃ করোনা ভাইরাসের ছোবল থেকে বেঁচে থাকলে ও দৈনিক আয় বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন মধ্যবিত্ত আর নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ৷ ক্ষুধার্ত মানুষের দুর্দশা ও খুদা মেটানোর জন্য সাথে সাথে চালু হয়েছে সরকারী সহায়তা, শুধু সরকারী সহায়তা পর্যাপ্ত হবে না তাই পাশাপাশি নিজ উদ্যোগে সামর্থ্যবান ব্যাক্তিদের দেওয়া অর্থে আরো ব্যাপক আকারে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা – জিয়াউল হক মীর৷

গতকাল ৩রা এপ্রিল শুক্রবার কুতুবদিয়ার বিভিন্ন রুটে চলাচলরত টেম্পু , মাহিন্দ্রা গাড়ি চালকদের মাঝে খাদ্য ও স্যানিটাইজার সামগ্রী বিতরণ করতে দেখা যায় কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা – জিয়াউল হক মীরকে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জিয়াউল হক মীর জানান, শুক্রবার দুপুরের পর হতে প্রথমে ধুরুং বাজার থেকে দরবার ঘাট রুটে চলাচল কৃত মাহিন্দ্রা চালকদের মোট ৩০ (ত্রিশ) জনকে এবং বড়ঘোপ বাজার থেকে আলী আকবর ডেইল ঘাট রুটের টেম্পু চালকদের মোট ৪০ (চল্লিশ) জনকে জসিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে সর্বমোট ৭০ জন টেম্পু ও মাহিন্দ্রা গাড়ি চালকদের মাঝে স্যানিটাইজার সামগ্রী ও ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে৷

ত্রাণ বিতরণ কালে তিনি বলেন, সব গাড়ি চালকদের একটাই বার্তা দিতে চাই করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে আমরা আপনাদের গাড়ি নিয়ে বের হতে নিষেধ করেছি তাই আমরাই আপনাদের খাদ্য চাহিদা মিটানোর জন্য ত্রাণ নিয়ে আপনাদের কাছে হাজির হয়েছি , এখন অনুরোধ করে বলছি পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আপনারা গাড়ি নিয়ে বের হবেন না, ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন৷

ত্রাণ বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন, যিনি দুর্যোগের শুরু থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পাশাপাশি থেকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন আর্ত মানবতার সেবায় কুতুবদিয়া উপজেলার সম্মানিত ভূমি কর্মকর্তা জনাব হেলাল উদ্দিন। আরও উপস্থিত ছিলেন ধুরুং মাহিন্দ্রা মালিক সমিতির সভাপতি – জানে আলম সিকদার তাঁর বক্তব্যে বলেন, আমার গরীব চালকদের এই সংকটময় সময়ে সাহায্য করার জন্য ইউএনও মহোদয়কে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি আর মাহিন্দ্রা চালক গণ এই সহযোগিতা পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত তারা ও আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে৷

এদিকে টেম্পু গাড়ির লাইন ম্যান একরাম সিকদার জানান, সম্মানিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজ উদ্যোগে যে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়া দরিদ্র চালকদের খাদ্যের ব্যাবস্থা করেছেন তাতে আমি ও আমার লাইনের সকল চালক, মালিক অত্যন্ত আনন্দিত এবং সকলের পক্ষ থেকে আমি এই মহৎ কাজের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, সাথে সাথে জনহিতকর এই উদ্যোগ ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে বলে তিনি মন্তব্য করেন৷৷

আপনার মতামত লিখুন :