চকরিয়ায় মুক্তিযুদ্ধা পরিবারের পক্ষ থেকে ১০০০ একহাজার পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৪৪ AM, ২৮ এপ্রিল ২০২০
"যখনি দেশে এসেছে দূর্যোগ তখনি নিয়েছেন মহতী উদ্যোগ দিয়েছেন জনকল্যাণে ত্রাণ বাঙ্গালী ত্রাষ্টের মাধ্যমে পেয়েছেন মানবতার ঘ্রান।"

মোঃ নাজমুল সাঈদ সোহেল,চকরিয়া:

স্বাধীনতার পূর্ববর্তীকাল থেকে দেশ এবং দশের জন্য ত্যাগ স্বীকার করে আসছেন কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার লক্ষ্যারচরে জন্মগ্রহণ করা জাতির সূর্য সন্তান প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী। জীবদ্দশায় তিনি যেমন দেশ ও দশের জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে গেছেন, ঠিক তেমনি শিক্ষা দিয়ে গেছেন তাঁহার পরিবার পরিজনদের। এরই আলোকে তাঁহার মৃত্যুর পরবর্তী গঠন করেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী ট্রাস্ট নামক এক ট্রাষ্টি প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পরিচালিত হয়ে থাকে সমাজের অসংগতি দূরীকরণে শিক্ষা ব্যাবস্থা প্রদান, বন্যা কবলিত মানুষের খাদ্য সহায়তা প্রদান, মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদানসহ সমাজের প্রতিটি স্থরে নানা ধরনের সহায়তা প্রদান করে আসছেন।

চলমান করোনা ভাইরাস সংক্রমণে বিশ্বায়ন যখন স্থবির ঠিক সেই মুহুর্তে অসহায় ও কর্মহীন মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালীর পরিবার। এরই ধারাবাহিকতায় ২৭শে এপ্রিল (সোমবার) বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী ট্রাস্টের পক্ষ থেকে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নে ১০০০ (একহাজার) পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন।

এই সময় আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার জনাব সৈয়দ সামসুল তাবরীজ, বিশেষ অতিথি চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর বারবার নির্বাচিত সফল সভাপতি তারুণ্যের অহংকার সাবেক সফল ছাত্রনেতা রেজাউল করিম সেলিম, সম্মানিত উপদেষ্টা যথাক্রমে জিয়াউল করিম মোহাম্মদ তারেক ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নেচারা বেগম প্রমূখ।

অনুষ্ঠানের উদ্ভোধক চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী বলেন, অতীতেও বাঙ্গালী পরিবারটি নিঃস্বার্থভাবে সমাজের দূর্যোগপূর্ণ সময়ে অসহায়দের পাশে ছিলেন বরাবরেরমত আজো প্রমাণ করে চলেছেন সর্বদাই জনকল্যাণে আত্ননিয়োজিত। জাতির ক্রান্তিলগ্নে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী কল্যাণ ট্রাস্টের নিজস্ব উদ্যোগে এক হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণের কর্মসূচি সত্যিই একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। আমি এ মহৎ উদ্যোগ গ্রহনের জন্য লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী কল্যাণ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম সেলিমসহ তার পরিবারকে সাধুবাদ জানাই।

প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী কল্যাণ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম সেলিম বলেন, ইতিপূর্বেও বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী কল্যাণ ট্রাস্টের পক্ষ থেকে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের এক হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী বাড়িতে অবস্থান নেয়া লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের এক হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী হিসেবে চনাবুট (চোলা), তৈল, চিনি, সেমাই, ময়দা ও মুড়িসহ অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের যথাক্রমে মন্ডল পাড়া, হাজী পাড়া, জহির পাড়া, রুস্তম আলী চৌধূরী পাড়া, উত্তর পাড়া, চরপাড়া, পূর্ব পাড়া, পূর্ব মাঝের পাড়া, জিদ্দা বাজার ও স্কুল পাড়া এলাকার এক হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে পর্যায়ক্রমে এসব ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী কল্যাণ ট্রাস্ট অতীতে সব সময় অসহায় জনগনের পাশে ছিল, বর্তমানেও আছে এবং ভবিষ্যতেও সব সময় অসহায়দের পাশে থাকবে বলেও ঘোষনা দেন তিনি।

ইফতার সামগ্রী বিতরণের সময় অসহায় লোকজনকে করেনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার, মাক্স পড়া এবং নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে ঘরে থাকার পাশাপাশি বিনা প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে না যাওয়ার জন্য সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী পরামর্শ দেওয়া হয়। দেশের এ ক্রান্তিকালীণ সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সমাজের সকল স্থরের বিত্তবান লোকদের যার যার অবস্থান থেকে করোনা প্রতিরোধে ও অসহায় লোকজনের সহায়তায় এগিয়ে আসারও আহবান জানান।

আপনার মতামত লিখুন :