খুরুশকুল বাসী দের আকুল আবেদন সাংবাদিক রাশেদুল আলম রাশেদের | সি কক্স নিউজ

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৩৮ AM, ০২ মে ২০২০

সম্মানিত খুরুশকুল বাসী,,,,

আসসালামু আলাইকুম,,,,

আপনারা অবশ্যই অবগত আছেন যে কোভিট-১৯ নোভেল করোনা ভাইরাসের কারনে আমাদের মাতৃভূমি প্রিয় বাংলাদেশসহ সমগ্র পৃথিবী আজ স্তব্ধ। সমগ্র বাংলা আজ লকডাউন, যা সমগ্র বিশ্বের জন্য অত্যন্ত হুমকি স্বরুপ, বিশেষ করে আমাদের বাংলাদেশের অর্থনীতির জন্য এক বড় বাধা। প্রায় সমগ্র দেশ লকডাউনে আওতায়, শিল্প কারখানা থেকে শুরু করে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয়, দুর পাল্লার যানবাহন, বিভিন্ন স্থরের অফিস আদালত বন্ধ রয়েছে।এমনকি আমাদের সকল ধর্মের ইবাদতখানার মধ্যে রয়েছে সরকারি নিষেধাজ্ঞা, যা শুধুৃমাত্র নোবেল করোনা কোভিড-১৯ এর এই ভয়াল পরিস্থিতি থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্য। আজ বাংলাদেশের ৮২৩৮ জন কোভিড-১৯ তথা নোবেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। কক্সবাজার ৩৯ জনের মধ্যে কক্সবাজার সদর উপেজেলা খুরুশকুল ইউনিয়নেও ২ জন। যা আমাদের খুরুশকুল বাসীর জন্য এক ভয়ানক বিপদ সংকেত।

আপনারা যদি এভাবে ঘুরাফেরা করেন তাহলে কারো কিছু করার থাকবে না। চোর পুলিশ খেলা বাদ দিয়ে, নিজের জীবনের কথা ও নিজ পরিবারের কথা চিন্তা করুন। যদি থাকে পরিবারের মায়া তাহলে বাড়িতে থাকুন। পুলিশ, ডাক্তার, ম্যাজিষ্টেট কেউ বাদ যাচ্ছে না এ মহামারীর কবল থেকে, সেইখানে আপনি আমি কি?

আমি খুরুশকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহুদয় ও মেম্বারসহ সকল সমাজ পরিচালনা কমিটি ও রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গদের হাতজোড় করে অনুরোধ করতেছি লোক সমাগম এড়ানোর জন্য সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণ করুন।

অযথা বাজারে ঘুরাঘুরি, খেলাধুলা নামের জুয়া খেলা, সকল মহল্লার পাশের মাঠে খেলাধুলা, আসরের আছরের ওয়াক্ত সময় সব মাঠে খেলাধুলা অনতিবিলম্বে বন্ধ করা না গেলে আপনার আমার সবার বাড়িতে নোবেল করোনা জেগে উঠবে। ইতালি, স্পেন, আমেরিকার অবস্থা হতে বেশিদিন লাগবেনা, কারণ করোনার স্পর্শ ইতিমধ্যে খুরুশকুলে চলে এসেছে,

আমরা যদি সচেতন না হয় সরকার ও প্রশাসনের একার পক্ষে এ মহামারী রোধ করা সম্ভব নয়।

প্রিয় জন্মভূমির অগ্রজ ও অনুজগন,,
আপনাদের প্রতি আকুল আবেদন এই রোগ থেকে বাচঁতে হলে চাই সবার সচেতনা। আপনার আমার একটু সচেতনা রক্ষা করতে পারে খুরুশকুল ইউনিয়নের সকল মানুষকে। আসুন আমরা সচেতন হই, জরুরি একান্ত প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হবো না, নিয়মিত ৩০ মিনিট পর পর ২০ সেকেন্ড ধরে যেকোনো সাবান দিয়ে হাত ধুই, মাস্ক ব্যবহার করি। দোকান পাঠ হাট বাজারে অযথা আড্ডা থেকে বিরত থাকি।

পরিশেষে আপনাদের বলবো আমরা আল্লাহর উপর বিশ্বাস রাখি, একটু সচেতন থাকি, নিয়মিত সাওম পালন করি, নিয়মিত নামাজ পড়ি। আমরা মানুষের প্রতি ভালবাসা বৃদ্ধি করি, সাথে নিজ পরিবারের প্রতিও ভালবাসা বৃদ্ধি করে নিজের প্রতি যত্ন নি, হিংসা বিদ্বেষ পরিহার করি, মিথ্যা কথা না বলি, রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করি, সবাই মিলেমিশে সুন্দর জীবন গড়ি। কারণ এক দিন চলে যেতে হবে সবাইকে না ফেরার দেশে, তখন ভাল খারাপ হিসাব হবে,,,তাই আমরা মানুষের কাছে নয়, আল্লাহর কাছে ভাল হওয়ার চেষ্টায় থাকি। নিশ্চয় আল্লাহ আমাদের এই গজব থেকে মুক্তি দিবেন। আমিন।।

আপনাদের সবার জন্য শুভ কামনা ও ভালোবাসা রইলো, সবাই এই অদমেকে ক্ষমা করে দিবেন এবং দোয়া করবেন।

★নিবেদক★

আপনাদেরই সন্তান

সাংবাদিক রাশেদুল আলম রাশেদ

দৈনিক আলোকিত উখিয়া এবং সাবেক স্পিশাল পি পি সহকারি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল জেলা দায়রা জজ আদলত, কক্সবাজার।

আপনার মতামত লিখুন :