মহেশখালীতে ত্রাণের গাড়িতে ইয়াবা, ইউপি মেম্বার পলাতক | সি কক্স নিউজ

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:২৬ PM, ০৫ মে ২০২০

মহেশখালী প্রতিনিধি: 

কক্সবাজারের মহেশখালীতে ত্রাণ বিতরণের কাজে নিয়োজিত একটি কভার্ডভ্যান থেকে দেড় লাখ ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ, আটক করা হয়েছে দুইজনকে।

মহেশখালী উপজেলার ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের লম্বা ঘোনা এলাকায় মঙ্গলবার ভোর ৪ টায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে দেড় লাখ পিচ ইয়াবাসহ দু জন ব্যবসায়ীকে আটক করে।  এ সময় ইয়াবা পাচারে ব্যবহৃত কার্ভাড ভ্যানটি জব্দ করা হয়।

মহেশখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বাবুল আজাদ বলছেন, ইয়াবাগুলো ওই কভার্ডভ্যানে করে কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রামে ‘পাচার’ করা হচ্ছিল। ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. ওসমান গণিও ‘এর সঙ্গে জড়িত’ বলে আটক দুজন পুলিশকে জানিয়েছেন।

আটকরা হলেন- চট্টগ্রাম শহরের কালামিয়া বাজার এলাকার আইয়ুব আলীর ছেলে করিম উল্লাহ (৩৫) ও সুনামগঞ্জের তাহিরপুর ইউনিয়নের লাকসাম এলাকার মোহাম্মদ সোলাইমানের ছেলে নুর মোহাম্মদ (৩২)।  তারা ওই ত্রাণের গাড়ির সঙ্গে মহেশখালীতে গিয়েছিলেন।

তবে ওই গাড়ির চালক বা সহকারীকে আটক করা যায়নি জানিয়ে পরিদর্শক বাবুল বলেন, “ইউপি সদস্য ওসমান গণিও পলাতক। বাড়িতে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি।”

সকালে ডেইল পাড়ায় ছোট মহেশখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের গেইটে দাঁড়িয়ে থাকা ওই কভার্ডভ্যানের লোকজনের ‘গতিবিধি সন্দেহজনক’ মনে হওয়ায় স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশের একটি দল সেখানে গিয়ে কভার্ডভ্যানে তল্লাশি করে বলে পরিদর্শক বাবুল জানান।

তিনি বলেন, ভ্যানের পাটাতনের ভিতরে বিশেষ কৌশলে লুকিয়ে রাখা ১ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। তখন ভ্যানে থাকা দুইজনকে আটক করে পুলিশ।

আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পাওয়া তথ্যের বরাতে এ পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, মহামারীর মধ্যে মানুষকে সহায়তার জন্য কভার্ডভ্যানটি দেড়শ প্যাকেট ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে সোমবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে মহেশখালী পৌঁছায়। গাড়িতে থাকা লোকজন ত্রাণ সামগ্রী কেনার ভাউচার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের দেখিয়ে মহেশখালীতে প্রবেশ করে।

“পরে তারা ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ওসমান গণির সহায়তায় ওই ত্রাণ সামগ্রী স্থানীয়দের মাঝে বিতরণ করে। গাড়িটি চট্টগ্রামে ফেরার জন্য প্রস্তুতি নেওয়ার সময় পুলিশ অভিযান চালায়।”

পরিদর্শক বাবুল বলেন, “আটকরা ইয়াবাগুলো ইউপি সদস্য ওসমান গণির কাছ থেকে সংগ্রহ করে চট্টগ্রাম পাচার করছিল। এর আগে গত ২৫ তারিখ থেকে ৩ তারিখের মধ্যে মহেশখালী থেকে তারা ইয়াবার আরও দুটি চালান এভাবে চট্টগ্রাম ও ঢাকায় পাচার করেছে। ”

এ ঘটনায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

আপনার মতামত লিখুন :