• বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৮:৪১ পূর্বাহ্ন

ইসলামী আন্দোলন আওয়ামী লীগের বি-টিম : শাহজাহান ওমর

ডেক্স নিউজ / ২৯ ভিউ টাইম
আপডেট : শনিবার, ২০ মে, ২০২৩

বরিশালে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর (বীর উত্তম) বলেছেন, ইসলামী আন্দোলন আওয়ামী লীগের বি-টিম।

শনিবার (২০ মে) দুপুরে মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা সদর রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জনসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা নোটিশ পেয়েছে, এখন প্রলাপ বকছে- ‘আমাকে যারা স্যাংশন (নিষেধাজ্ঞা) দেন আমি তাদের মালামাল কিনব না’। আমেরিকা যদি কালকে বলে তোমার জামাকাপড় নেব না, কি অবস্থা হবে? মিডিলিস্ট চলে আমেরিকার কথায়, আমেরিকা যদি মিডিলিস্টের সালমানকে বলে তোমার কুয়েত, কাতার, সৌদিতে আর লোক নেবা না। রেমিটেন্স আসবে? আসবে না। তো কার সাথে ঝগড়া করি আমরা?’

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, উচ্চ আদালতের নির্দেশনাকে অধীনস্থ আদালত এবং সরকারের অবস্থা, গায়েবি মামলায় নির্বিচারে গ্রেফতার, মিথ্যা মামলা ও পুলিশি হয়রানি দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, বিদ্যুতের লোডশেডিং, আওয়ামী লীগের সরকারের সর্বগ্রাসী দুর্নীতির প্রতিবাদ এবং ১০ দফা দাবি বাস্তবায়নে বরিশালে জনসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আরেকটা কথা আমাদের পার্শ্ববর্তী চরমোনাই। পীর, আলেম দরবেশ মানুষ আমরা অবশ্যই তাকে সম্মান করি। কয়েকদিন আগে উনি বললেন, এই সরকারের আমলে কোনো নির্বাচনে যাওয়া ঠিক হবে না। এখন উনি কেন মেয়র হওয়ার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন? এটার অর্থ কি জানেন? এই নির্বাচনে হতে তো পারবে না, যে হবেন তাকে বৈধতা দেয়া। চরমোনাই কী রাজ্য কিভাবে পরিচালনা করে তা জানেন? এক্ষেত্রে জ্ঞান দরকার, স্পেশাল জ্ঞান। ওই জ্ঞান মুফতিদের আছে কিনা সন্দেহ।

কিন্তু আপনারা আওয়ামী লীগকে বৈধতা দিচ্ছেন মানে কি? আপনারা আওয়ামী লীগের বি-টিম। যখন বিএনপি নির্বাচন করে না ৩০০ জন মুফতি নির্বাচনে দাঁড় করিয়েছে মানে কি? যারা খুচরা দল তারা আওয়ামী লীগকে বৈধতা দেয়। এবার আর হবে না। ২৩ সালের নির্বাচনে এরকম করতে দেয়া যাবে না। যারা এই বৈধতা দিতে যাবেন হাত পায়ে লোহার রড বাইন্ধা যাইয়েন। শেখ হাসিনা শিখিয়েছেন একটা মারলে পাঁচটা মার, বলছে কি লগি বৈঠা দিয়া পিটাও। সাপ যেভাবে মারে ওই রকম মানুষ মার। প্রধানমন্ত্রী আমাদের জ্ঞানদান করেছেন। ওই জ্ঞানে জ্ঞানিত হইয়া আমরাও ২০২৩ সালে নির্বাচনে ওই কারবার করব।’

মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান ফারুকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন দলের যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মো: মজিবর রহমান সরোয়ার, বিএনপি মিডিয়া সেল আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপন, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হক নান্নু, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবুল হোসেন খান, উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক দেওয়ান মো: শহিদুল্লাহ।

সমাবেশের সঞ্চালনা করেছেন মহানগর সদস্য সচিব মীর জাহিদুল কবির জাহিদ, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আবুল কালাম শাহীন ও উত্তর জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মিজানুর রহমান মুকুল।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ