• রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন

চকরিয়ায় জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্টিত

চকরিয়া প্রতিনিধি / ১১ ভিউ টাইম
আপডেট : শনিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২৩

সমবায়ে গড়ছি দেশ’ স্মার্ট হবে বাংলাদেশ। এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারাদেশের ন্যায় কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমবায় কার্যালয়ের নানা আয়োজনে ৫২তম জাতীয় সমবায় দিবস পালন করা হয়েছে।
শনিবার (৪নভেম্বর) সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর এলাকা থেকে সমবায় র‍্যালী বের করে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে হলরুম ‘সুগন্ধা’ মিলনায়তনে গিয়ে র‍্যালিটি শেষ হয়। র‍্যালী শেষে জাতীয় সংগীতের মধ্যে দিয়ে জাতীয় পতাকা ও সমবায় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসটি উদ্বোধন করা হয়। দিবসটি ঘিরে উদ্বোধনের পর পরই এক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও উপজেলা সহকারী কমিশনার মো: রাহাত উজ জামানের সভাপতিত্বে সমবায় দিবসের অনুষ্টিত র‍্যালি ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জাফর আলম এমপি।

সহকারী উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা আবু তাহের ও তপন দাশের সঞ্চালনায় অনুষ্টানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মকছুদুল হক ছুট্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: আবু মুছা, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু, বিআরডিসি চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম, চরণদ্বীপ ভূমিহীন ও কৃষি সমবায় সমিতির ফোরকানুল ইসলাম, দর্পন সমিতির সভাপতি ডা: তেজেন্দ্র লাল, চকরিয়া উপকূলীয় মৎস্য চাষী সমবায় সমিতির তানভীর আহমদ সিদ্দিকী তুহিন প্রমুখ।
এছাড়াও বিভিন্ন সমবায় সমিতির সভাপতি ও সম্পাদকগণ বক্তব্য রাখেন।
অনুষ্ঠান শেষে জাতীয় সমবায় দিবস
উপলক্ষে উপজেলা সমবায় দপ্তর থেকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় বিভিন্ন ব্যাক্তিকে শ্রেষ্ট সমবায়ী পুরস্কার এবং সমবায় সমিতিকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ট সমবায় সমিতির ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

সমবায় দিবসের আলোচনা সভায় বক্তরা বলেন, বঙ্গবন্ধু সমবায়ের আদর্শে দেশের উৎপাদন ব্যবস্থা তৈরি করে সাধারণ মানুষের স্বনির্ভরতা অর্জনের মাধ্যমে দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের স্বপ্ন দেখেছিলেন। তার ধারাবাহিকতায় সরকার উৎপাদনমুখী ও টেকসই উন্নয়নে সমবায় সেক্টর গুরুতপূর্ণ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে কাজ করে দেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ রূপান্তরিত করার প্রয়াসে এগিয়ে যাচ্ছেন। দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত করে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে ভূমিকা রাখবে।

বক্তারা আরও বলেন, সমবায়ের মাধ্যমে গ্রামকে একটি স্বনির্ভর অর্থনীতি গড়ে তুলতে চেয়েছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সমবায় সমিতির প্রভৃতি কার্যক্রমের মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্য উন্নয়নসহ সামগ্রীক আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। দেশের সম্পদকে কাজে লাগিয়ে উন্নয়ন ও অগ্রগতি অর্জনে সমবায় সেক্টর গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নত সমৃদ্ধ ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। একক প্রচেষ্টা যা অসম্ভব, সমবায়ের মাধ্যমে তা করা সম্ভব বলে বক্তরা জানান।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ