• শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন

কুতুবদিয়ায় শুরু হয়েছে শারদীয় দুর্গাপূজা | ChannelCox.com

সংবাদদাতা
আপডেট : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০

কাইছার সিকদার:

স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাত্ত্বিক পূজায় সীমাবদ্ধ রেখে সারা দেশে শুরু হয়েছে উৎসবের আমেজ, উপলক্ষ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় রীতি শারদীয় দুর্গাপূজা৷ তারই অংশ হিসেবে কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ায় ২২অক্টোবর বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। তবে করোনা মহামারির কারণে উৎসব-সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো পরিহার করে শুধু সাত্ত্বিকভাবেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের পূজা।

উপজেলায় ১২টি পৃথক পৃথক পূজা মণ্ডপে এক সাথে শুরু হয়েছে মা দুর্গার আরাধনা৷ পূজা মণ্ডপ গুলো হচ্ছে (১) কুতুবদিয়া কেন্দ্রীয় কালি মন্দির-বড়ঘোপ (২) বানেশ্বর কালি মন্দিরমন্দির-মধ্যম বড়ঘোপ (কৈবর্ত্য পাড়া) (৩) সর্ব মঙ্গলা কালি মন্দির-পূর্ব বড়ঘোপ, কৈবর্ত্য পাড়া (৪) বিমল নাথের দুর্গা মন্দির-দক্ষিণ নাথ পাড়া (৫) ভবানী মহাজনের দু্র্গা মন্দির-দক্ষিণ নাথ পাড়া (৬) লেমশীখালী সর্ব মঙ্গলা দুর্গা মন্দির-ধুপী পাড়া (৭) রাধাকৃষ্ণ নন্দ ধাম মন্দির-কুমিরা ছড়া (৮) রাধা গোবিন্দ দুর্গা মন্দির-মগডেইল (৯) প্রদীপ পাড়া সার্বজনীন দুর্গা মন্দির-প্রদীপ পাড়া (১০) মায়ের বাড়ি কালি মন্দির-মিয়ার ঘোনা (১১) শ্রী শ্রী দুর্গা মন্দির-পূর্ব বড়ঘোপ, কৈবর্ত্য পাড়া (১২) শ্রী শ্রী জগন্নাথ মন্দির-জল দাশ পাড়া৷ এসব মন্দিরে যথাযোগ্য মর্যাদায় ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে দেবী মায়ের অর্চনায় ভক্ত দের উৎসব মুখর পদচারণা৷ এছাড়া পারিবারিক ভাবে ২৯টি ঘট পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে কুতুবদিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক সমির কান্তি দে জানান৷

কুতুবদিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক সমির কান্তি দে বলেন, করোনা কালীন সময়ে এবারে মায়ের আগমন ঘটেছে তাই সকলের প্রতি অনুরোধ থাকবে সরকারী নির্দেশনা মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী উৎসবে অংশগ্রহণ করুন৷ শারদীয় দুর্গোৎসব সত্য-সুন্দরের আলোকে ভাস্বর হয়ে উঠুক; ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার মধ্যে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের বন্ধন আরো সুসংহত হোক- এ কামনা করি৷

কুতুবদিয়া পূজা উদযাপন পরিষদের সাঃ সম্পাদক রাজিব সেন বলেন, শেখ হাসিনার সরকার অসাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাসী, আশা রাখি কুতুবদিয়াবাসি অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে সীমাবদ্ধতা ও নির্দেশনা মেনে এবারের উৎসবে যোগ দেবেন৷

কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ জালাল উদ্দিন বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে প্রত্যেকটা পূজা মণ্ডপের নিরাপত্তার বিষয় টি মাথায় রেখে সর্বোচ্চ সতর্কতা গ্রহণ করা হয়েছে৷ এবারের পূজা সুষ্ঠু ও নিরাপদ ভাবে সম্পন্ন হবে আশা করছি৷ কোথাও অসঙ্গতি বা বিশৃঙ্খলা দেখা দিলে সাথে সাথে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন দ্রুত ব্যাবস্থা নেব৷ মহামারিতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দুর্গোৎসব উদযাপনের অনুরোধ জানান তিনি৷

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের এবং সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি পরিপূর্ণভাবে মেনে ধর্মীয় বিধিবিধান সমুন্নত রেখে দুর্গাপূজার আয়োজন ও অংশগ্রহণের জন্য সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পরিষদের নেতৃবৃন্দ। কারণ, এ বছরের পূজা অন্যান্য বছরের মতো নয়। করোনা আতঙ্কের আবহেই এবার দেবীপক্ষের সূচনা হয়েছে। আর মহামারির দুর্যোগ মাথায় নিয়েই এবার হচ্ছে মাতৃবন্দনা৷ মায়ের কাছে পূজারী দের এবারের আরাধনা থাকবে বিশ্বজোড়া এই চলমান মহামারির প্রকোপ থেকে সকল মানবজাতি যেন পরিত্রাণ পায়, পৃথিবী টা যেন হয় মানষের বসবাসের জন্য সুন্দর ও নিরাপদ৷

২৬ অক্টোবর সোমবার প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে এবারের উৎসবের সমাপ্তি ঘটবে বলে জানান কুতুবদিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ৷

Channel Cox News.


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × five =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ