ভার্জিন দ্বীপ সোনাদিয়া ঝুঁকিতে, স্থানীয়দের উদ্বেগ দ্বীপ রক্ষায় শত শত নারী-পুরুষের মানববন্ধন

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৩৪ PM, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
কক্সবাজারের সোনাদিয়া দ্বীপের পরিবেশ ও প্রতিবেশ রক্ষায় দ্বীপবাসীকে সাথে নিয়ে সচেতনতামূলক সভা ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে পরিবেশ বিষয়ক সংস্থা ‘এনভায়রণমেন্ট পিপল’।

মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে দ্বীপের পশ্চিম পাড়ায় অনুষ্ঠিত উক্ত কর্মসূচীতে দ্বীপের শত শত নারী-পুরুষ অংশ নেয়। সভায় দ্বীপবাসী জানান, পড়াশুনায় দ্বীপের লোকজন পিছিয়ে থাকলেও গাছপালা, প্যারাবন, পশু-পাখি, জীববৈচিত্র এবং প্রাকৃতিক সার্বিক পরিবেশ রক্ষা হলেই যে দ্বীপটি টিকে থাকবে তা তাদের অধিকাংশ লোকজনই অবগত রয়েছেন। যার কারণে তারা প্রাকৃতিক এসব সম্পদ ধ্বংস করেন না। দ্বীপের কেউ গাছপালা কাটলে তারা বাঁধা দেন। গাছপালা ও পরিবেশ রক্ষা হলেই যে তারা বেঁচে থাকবেন সেই প্রমান তারা পেয়েছেন প্রাকৃতিক নানা দুর্যোগের সময়।

পরিবেশ-প্রতিবেশ রক্ষায় সচেতনতামূলক সভার এক পর্যায়ে প্রাকৃতিক নানা দুর্যোগের সাথে লড়াই করে বেঁচে থাকা দ্বীপের লোকজন দ্বীপে আর বসবাস করতে পারবেন কিনা তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে মানববন্ধন কর্মসূচীতে দাঁড়িয়ে যান। এসময় তারা বলেন, সরকার আইন করে এ দ্বীপটিকে প্রতিবেশগত সংকটাপন্ন এলাকা ঘোষনা করেছে। আবার সরকারই নিজেরা আইন ভঙ্গ করে দ্বীপটিতে পর্যটনের নামে নানা অবকাঠামো তৈরী করে পরিবেশ ধ্বংসের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল ‘বেজা’ দ্বীপটি দীর্ঘমেয়াদী লীজ নিয়েছে। তাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে একদিকে যেমন পরিবেশ ধ্বংস হবে অপরদিকে প্রায় দুই শত বছরের তাদের ভিটেমাটি ছাড়তে হবে। এনিয়ে দ্বীপবাসী চরম উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা সরকারের এই পরিকল্পনা বাতিলের দাবী জানান।

দ্বীপবাসীর পক্ষে সভায় বক্তব্য রাখেন স্থানীয় মসজিদের ইমাম হাফেজ দেলোয়ার হোসেন, মোহাম্মদ ফোরকান, নুরুল ইসলাম, জাফর আলম, রেজিয়া বেগম।
সভায় ‘এনভায়রণমেন্ট পিপল’র স্বেচ্ছাসেবকরা বলেন, দ্বীপটিকে রক্ষা করতে হলে দ্বীপের স্থানীয় বাসিন্দাদের আগে এগিয়ে আসতে হবে। সর্বপ্রথম স্থানীয় বাসিন্দাদের হাতেই দ্বীপের প্রাণ-প্রকৃতির উপর আঘাত আসতে পারে। দ্বীপবাসি পরিবেশ বিষয়ে সচেতন হলেই কেবল পরিবেশ রক্ষা পাবে। শুধু তাই নয়, ইসিএ আইন বিরোধী সরকারের গৃহিত পদক্ষেপেরও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। পর্যটনের নামে দ্বীপটিকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে না দেয়ার দাবী জানানো হয় মানববন্ধনে।

মানববন্ধন শেষে দ্বীপের সৈকতে পরিস্কার-পরিচ্ছনতা কর্মসূচী পালন করে সংগঠনটি। এর আগে সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) সংগঠনটির ৩০ সদস্যের একটি দল সকাল ৮টায় কক্সবাজারের কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করে সোনাদিয়া দ্বীপের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। দুপুরে দ্বীপে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান, সোনাদিয়া দ্বীপের পরিবেশ রক্ষায় আলোচনা সভা, পরিবেশ বিষয়ক কর্মশালা, পরিবেশ রক্ষার শপথবাক্য পাঠ সহ নানা কর্মসূচী পালন করা করে।

সোনাদিয়া দ্বীপ রক্ষার দু’দিনের ওই কর্মসূচীতে চ্যানেল আই এর কক্সবাজারস্থ স্টাফ রিপোর্টার এবং প্রকৃতি ও জীবন কক্সবাজারের উপদেষ্টা সরওয়ার আজম মানিক, এনভায়রণমেন্ট পিপল’র প্রধান নির্বাহী রাশেদুল মজিদ, আজিম নিহাদ, এইচ এম নজরুল ইসলাম, মুহাম্মদ হোসাইন, আবু সাদাত আহমদ নুহ, সাদ্দাম হোসেন, শাহেদ মিজান, আজিজ রাসেল, সাইফুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর শামস্, তারেকুর রহমান, এস এম রুবেল, এম ওসমান গনি, মিজানুর রহমান, মোহাম্মদ হাফেজুল আলম চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম, মোঃ নুরুল হোসাইন, শেখ কামাল, শহীদুল করিম, শাহী কামরান, মনসুর আলম, আমিনুল ইসলাম, এরফান হোসাইন, রিফাতুল মজিদ, মোহাম্মদ রুবেলসহ ৩০ জন পরিবেশকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :