• বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:১৪ অপরাহ্ন
  • Bengali Bengali English English

ফ্লাইওভারে গাড়ি থামিয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা, র‍্যাব সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৩

চ্যানেল কক্স ডেস্ক
আপডেট : শনিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২৩

রাত তখন সোয়া ২টা। মহাখালী ফ্লাইওভারে গাড়ি থামিয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালান এক র‍্যাব সদস্যসহ চারজন। প্রাইভেট কারে থাকা দুজনকে হাতকড়া পরিয়ে মারধর শুরু করেন তারা। এ সময় ওই দুই ব্যক্তি বাঁচানোর জন্য চিৎকার শুরু করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই লোকজন জড়ো হয়ে যায়। চলে আসেন এক পুলিশ সদস্য। বেসরকারি একটি টেলিভিশনের গাড়িও পৌঁছায় সেখানে। একজন ৯৯৯-এ ফোন করে জানান পুলিশকে। জড়ো হওয়া লোকজন ছিনতাইচক্রের একজনকে ধরে ফেলে। র‍্যাব সদস্যসহ অন্য দুজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। পরে বনানী থানার পুলিশ পালিয়ে যাওয়া তিনজনের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। আরেকজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন আরিয়ান আহমেদ জয় (২৩), আল মোমেন (২৬) ও মো. ফরহাদ হোসেন (২২)। তাদের মধ্যে আল মোমেন র‍্যাবের সদস্য। ঘটনার সময় তাদের গায়ে র‍্যাবের কটি পরা ছিল বলে জানা গেছে। তাদের কাছ থেকে একটি খেলনা পিস্তল, স্টিলের তৈরি হাতকড়া, র‌্যাবের একটি কটি ও ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত প্রাইভেট কার উদ্ধার করা হয়েছে।

রাত তখন সোয়া ২টা। মহাখালী ফ্লাইওভারে গাড়ি থামিয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালান এক র‍্যাব সদস্যসহ চারজন। প্রাইভেট কারে থাকা দুজনকে হাতকড়া পরিয়ে মারধর শুরু করেন তারা। এ সময় ওই দুই ব্যক্তি বাঁচানোর জন্য চিৎকার শুরু করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই লোকজন জড়ো হয়ে যায়। চলে আসেন এক পুলিশ সদস্য। বেসরকারি একটি টেলিভিশনের গাড়িও পৌঁছায় সেখানে। একজন ৯৯৯-এ ফোন করে জানান পুলিশকে। জড়ো হওয়া লোকজন ছিনতাইচক্রের একজনকে ধরে ফেলে। র‍্যাব সদস্যসহ অন্য দুজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। পরে বনানী থানার পুলিশ পালিয়ে যাওয়া তিনজনের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। আরেকজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন আরিয়ান আহমেদ জয় (২৩), আল মোমেন (২৬) ও মো. ফরহাদ হোসেন (২২)। তাদের মধ্যে আল মোমেন র‍্যাবের সদস্য। ঘটনার সময় তাদের গায়ে র‍্যাবের কটি পরা ছিল বলে জানা গেছে। তাদের কাছ থেকে একটি খেলনা পিস্তল, স্টিলের তৈরি হাতকড়া, র‌্যাবের একটি কটি ও ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত প্রাইভেট কার উদ্ধার করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গ্রেপ্তারের পর পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‍্যাব সদস্য মোমেন জানিয়েছেন, তাদের কাছে তথ্য ছিল প্রাইভেট কার দিয়ে যারা যাচ্ছিলেন তাদের কাছে স্বর্ণের বার রয়েছে। লোভে পড়ে এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন তিনি। তার দাবি, গ্রেপ্তারকৃতদের একজন তার আত্মীয়, অন্যজন তার বন্ধু।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শহীদুলদের বহনকারী গাড়িটি আটকানোর সময় সেখানে চলে আসে বেসরকারি একটি টেলিভিশনের গাড়ি। সংবাদকর্মীরা চিত্রও ধারণ করেন। লোকজন জড়ো হয়ে গেলে সেদিক দিয়ে মোটরসাইকেলে যাওয়া সাকিব নামের এক পুলিশ সদস্যও তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসেন।

সাকিব গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তিনজন দুই ব্যক্তিকে ধরে মারধর করছিলেন। দুই ব্যক্তি বাঁচানোর আকুতি জানাচ্ছিলেন। পুলিশ দেখে তিনজনের একজন গাড়ির পেছনে পিস্তল রেখে রাস্তা পার হয়ে চলে যান, আরেকজন দৌড়ে পালিয়ে যান।’ ধরা পড়ার পর জনতার হাতে ধরা পড়া জয় গণমাধ্যমকে জানান, তিনি টঙ্গীতে একটি গার্মেন্টে চাকরি করেন। মোমেন নামের এক র‍্যাব সদস্যের সাথে মাদক সংক্রান্ত কিছু কাজে করতে গিয়ে তার পরিচয় হয়। পরে মোমেন তাকে দিয়ে আরো কিছু কাজ করান। ঘটনার দিন একটি অপারেশনের কথা বলে মহাখালী ফ্লাইওভারে নিয়ে আসেন।

জানা গেছে, গ্রেপ্তার র‍্যাব সদস্য সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য। তাকে বাহিনীর আইনে বিচার করা হতে পারে বলে জানা গেছে।


আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ
February 2023
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031