• বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন
Channel Cox add

পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

সংবাদদাতা
আপডেট : শুক্রবার, ১ নভেম্বর, ২০১৯

নিউজ ডেস্ক :
নেত্রকোণায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ করে হাত-পা ও মুখ বেঁধে দুইদিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার ভোর চারটার দিকে ওই শিক্ষার্থী পালিয়ে এসে মা-বাবাকে ঘটনাটি বলে। ঘটনার পর শিশুটিকে নেত্রকোনা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিশুর স্বজনরা জানায়, ২৯ অক্টোবর দিবারাতে শিশুটির নানী জামিলা খাতুনের সাথে পাশের মহল্লায় ধর্মীয় সভা (ওয়াজ মাহফিল) শুনতে যায়। শিশুটি নেত্রকোনার সদর উপজেলার লক্ষিগঞ্জ ইউনিয়নের নসীবপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। ওই দিনরাত সাড়ে এগারোটার দিকে ধর্মীয় সভা থেকে কয়েকজন বখাটে মেয়েটি জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর একটি ঘরে হাত-পা, মুখ বেঁধে দুই দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করে।

শিশুর বাবা (আবু তাহের) জানান, ভাজনীপাড়া গ্রামের একলাস মিয়ার বখাটে ছেলে পিয়েল মিয়া (২৫) তার মেয়েকে অপহরণ করে একটি ঘরে দুইদিন আটকে রাখে। রাতে মেয়েকে ধর্ষণ করে। দীর্ঘদিন ধরেই পিয়েল তার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করতো। এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন তিনি। ঘটনার পরদিন নেত্রকোনা থানায় একটি জিডি করেছেন বলেও জানান তিনি।

নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম জানান, জিডি’র ঘটনাটি এই ঘটনা কিনা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুুপার) এসএম আশরাফুল আলম হাসপাতালে শিশুটির সাথে কথা বলে জানান, “তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে সে জানিয়েছে। আমরা ঘটনাটি গুরুত্বের সাথে দেখছি। অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 3 =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ