ইয়াংগুনে বিমান ছিটকে পড়ার ঘটনায় কেউ গুরুতর আহত হয়নি: রাষ্ট্রদূত

Channel Cox.ComChannel Cox.Com
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:২১ PM, ০৮ মে ২০১৯

মিয়ানমারের ইয়াংগুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০৬০ ফ্লাইটটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ার ঘটনায় কেউ গুরুতর আহত হয়নি বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মঞ্জুরুল করিম খান চৌধুরী।

তিনি জানান, বিমানটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ার ঘটনায় পাইলটসহ বিমানের ৩৩ জন আরোহী আহত হলেও কারো অবস্থা গুরুতর নয়।

অবতরণের সময় বিমানটিতে, এক শিশুসহ ২৯ জন যাত্রী ছিলেন। এছাড়া পাইলটসহ চার জন ক্রু ছিলেন। দূর্ঘটনার সাথে সাথে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ওকালাপা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তবে, আহতদের কারো অবস্থা গুরুতর না হলেও বিমানটি যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে মিয়ানমারের অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশন।

বুধবার বোম্বারডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ৪০০ বিমানটি বিকেল ৩.৪০ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মিয়ানমারের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পরে সন্ধ্যা ৬.২২ মিনিটে ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় চারজন ক্রু ও এক শিশুসহ ৩৩ আরোহী নিয়ে রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে।

এদিকে, উড়োজাহাজটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ার কারণ সম্পর্কে বৈরী আবহাওয়াকেই দায়ী করা হচ্ছে।

কানাডায় প্রস্তুতকৃত বিমানটি সর্বোচ্চ ৭৪ জন যাত্রী নিয়ে ৫৫৬ কিলো/ঘন্টা গতিতে ২৭০০০ ফুট উঁচুতে উড়তে সক্ষম ছিল। বাংলাদেশ বিমানের বহরে এ ধরনের তিনটি বিমান রয়েছে যার দু’টি মিশরের স্মার্ট এভিয়েশন কোম্পানি থেকে ২০১৫ সালে পাঁচ বছরের চুক্তিতে ভাড়ায় আনা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :