• শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন

সব বাঁধা পেরিয়ে অসহায়দের নিয়ে কাজ করতে চাই:কণা চৌধুরী

সংবাদদাতা
আপডেট : শুক্রবার, ৩১ মে, ২০১৯

বিনোদন রিপোর্ট : সংগীতের পরিচিত মূখ গীতিকার ও কবি হিসেবে কণা চৌধুরীকে সবাই চিনে। আবার অনেকেই চেনেন প্রতিবাদী কন্যা হিসেবে। কোন কিছু লুকিয়ে না সরাসরি বলেন।মিডিয়া পাড়ায় ও দেশে অশ্লীলতা ও অপ্রাসঙ্গিক কিছু দেখলে তেলে বেগুনে জ্বলে উঠেন কণা চৌধুরী।

এর পরও কণা চৌধুরীর একটা ভালো মন আছে, ভালো কিছু উদ্দ্যেগ আছে যেটা অনেকেই জানে না হয়তো। তিনি প্রতিবছর বৃদ্ধাশ্রম,এতিমখানা ও পথশিশুদের সাহায্যে এগিয়ে আসেন।তাদের সঙ্গে ভাগ করেন সুখ দুঃখের। তবে এবার আর লুকিয়ে নয় সরাসরি সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে দাড়াতে চান তিনি।

সম্প্রতি কণা চৌধুরীকে স্বদেশমৃওিকা ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা হিসেবে নির্বাচিত করেছেন,স্বদেশমৃওিকা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোঃ আকবর হোসেন। এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি এ ঘোষণা দেন।

কণা চৌধুরী স্বদেশমৃওিকা ফাউন্ডেশনকে সঙ্গে নিয়ে সত্যিকার অর্থে মানবতার কাজে নিজেকে সপে দিতে চান বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, অসহায়দের সহযোগিতায় অনেকেই এগিয়ে আসেন নিজেদের স্বাধ্যনূযায়ী। ছোট ছোট পায়ে এগিয়ে চলা আমার অনেকদিনের।

ভালো কাজে নানান কথা হজম করতে হয়।তবে সব বাঁধা অতিক্রম করে এগিয়ে যাওয়ার নাম জীবন। আমার অনেকদিনের ইচ্ছে পথশিশুদের পাশে দাঁড়ানোর, সেই সুযোগটা আমাকে করে দিলো স্বদেশমৃওিকা ফাউন্ডেশনের ভাইস-চেয়ারম্যান পৌষী জামান।আমি অভিভূত! আমার আইডিয়া ও কাজে লাগে এটাতেও আমি খুবই খুশি।

পথশিশুদের পাশাপাশি এবার রিক্সাওয়ালা বা রাতে ফুটপাতে যাদের অবস্থান তাদের জন্যও থাকছে ঈদের নতুন লুঙ্গি পাঞ্চাবীসহ নানান ঈদ উপহার।

সবার সহযোগিতা পেয়ে থাকি এই অসহায়দের একটুকরো হাসি দেখার জন্য। আমাদের দেশে হাজার কোটিপতি আছে অসহায়দের পাশে একটুখানি দাঁড়ানোর। সবাই এগিয়ে আসুন সবাই অসহায়দের সঙ্গে থাকুন উপর আল্লাহ দেন দান-খয়রাতে এতোটুকু কমে না।

স্বদেশমৃওিকা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মোঃ আকবর হোসেন কণা চৌধুরীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এবং তার সফলতা কামনা করে সহযোগীতাও চেয়েছেন।

SuperWebTricks Loading...

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − 12 =

আরো বিভন্ন বিভাগের নিউজ